ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

পিসিআর মেশিন বিকল, বরিশালে ক‌রোনার নমুনা পরীক্ষা বন্ধ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০২০
পিসিআর মেশিন বিকল, বরিশালে ক‌রোনার নমুনা পরীক্ষা বন্ধ শের-ই বাংলা মেডিক্যালি কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাব

ব‌রিশাল: বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যালি কলেজের (শেবাচিম) আরটি-পিসিআর ল্যাবে করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা গত তিনদিন ধরে বন্ধ রয়েছে।

পিসিআর মেশিন বিকল হওয়ায় এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

মেশিনটি চালু হতে ৭ থেকে ১০ দিন সময় লাগতে পারে বলে জানান সংশ্লিস্টরা। তবে নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা ও ভোলার পিসিআর ল্যাবে পাঠিয়ে নমুনা পরীক্ষা চালু রাখা হয়েছে বলে দাবি কর্তৃপক্ষের।

শেবাচিমের আরটি-পিসিআর ল্যাবের প্রধান ও ভাইরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. আকবর হোসেন জানান, গত বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) পিসিআর ল্যাবে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরপর থেকে মেশিনে ত্রুটি দেখা দেওয়ায় পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। তখনই বিষয়টি ঢাকায় সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ঢাকা থেকে প্রকৌশলীরা বরিশালে পৌঁছে বিকল যন্ত্রপাতি মেরামতের জন্য ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেন। শনিবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে মেশিনটি ঢাকায় পাঠানো হয়। মেশিনটি মেরামতে ৭ থেকে ১০ দিন সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে, শেবাচিম হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক জানান, মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা বন্ধ থাকলেও নমুনা সংগ্রহ চালু রয়েছে। বরিশাল থেকে নমুনা সংগ্রহ করে কিছু নমুনা ঢাকায় এবং কিছু পাঠানো হচ্ছে ভোলার পিসিআর ল্যাবে। শনিবারও ১১২টি নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শেবাচিমে চলতি বছরের ৯ এপ্রিল থেকে পিসিআর ল্যাবে করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার কার্যক্রম শুরু হয়। এই ল্যাবে এখন পর্যন্ত ৪৬ হাজারেরও বেশি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। বরিশাল বিভাগে শেবাচিম ছাড়াও ভোলায় একটি পিসিআর ল্যাব রয়েছে। শনিবার থেকে পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

বরিশাল জেলায় এখন পর্যন্ত শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগী ৪ হাজার ৪৭১ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন চার হাজার জন এবং মারা গেছেন ৭৭ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০২ ঘণ্টা, ডি‌সেম্বর ০৫, ২০২০
এমএস/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।