ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য এদেশের মাটিতে হবেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২০
বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য এদেশের মাটিতে হবেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পরিবার পরিকল্পনা সেবা ও প্রচার সপ্তাহ ২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

ঢাকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের জন্য বছরের পর বছর কষ্ট করেছেন, জেল খেটেছেন। একমাত্র বঙ্গবন্ধুই পেরেছেন দেশকে স্বাধীন করতে।

বেলুচিস্তান বা কাশ্মীর এখনো স্বাধীনতা পায়নি। বঙ্গবন্ধু এদেশ স্বাধীন করেছিলেন বলেই আপনারা আজ স্বাধীন দেশের নাগরিক। কাজেই বঙ্গবন্ধুর সম্মানে দেশে যে ভাস্কর্য হবে, তা নির্মাণে কোনো বাধা দিতে আসবেন না। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য এদেশের মাটিতে হবেই। ’

রোববার (৬ ডিসেম্বর) মিরপুরের লালকুঠি হাসপাতালে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর আয়োজিত ৬-৮ ডিসেম্বর পরিবার পরিকল্পনা সেবা ও প্রচার সপ্তাহ ২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন।

পরিবার পরিকল্পনা সপ্তাহ পালন প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অন্য বছর ব্যাপক পরিসরে পরিবার পরিকল্পনা সপ্তাহ পালন করা হলেও এবছর কোভিডের কারণে কিছুটা সীমিত পরিসরে পালন করা হচ্ছে। তবে কোভিডের কারণে মানুষের স্বাস্থ্যসেবার কোনো ঘাটতি হতে দেওয়া হয়নি। দেশের ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক সার্বক্ষণিক খোলা রয়েছে। টিকাদান কর্মসূচি চলছে। ভ্যাকসিন আনার কাজও এগিয়ে যাচ্ছে। ’

অ্যান্টিজেন টেস্ট প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শনিবার (৫ ডিসেম্বর) অনলাইনে জুমের মাধ্যমে অংশ নিয়ে দেশের ১০ জেলায় একযোগে অ্যান্টিজেন টেস্ট প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। এ টেস্টের মাধ্যমে মাত্র ১৫-৩০ মিনিটেই রিপোর্ট পাওয়া যাবে। ফলে দেশে কোভিড পরীক্ষার আরেকটি নতুন ধাপ সংযোজিত হয়েছে। মানুষ এখন সচেতন হলে কভিডের দ্বিতীয় ঢেউ সামলানো সহজ হবে। ’

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিরপুরের ২শ’ শয্যাবিশিষ্ট লালকুঠি মাতৃ ও শিশুশিক্ষা প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন এবং হাসপাতাল প্রাঙ্গণে একটি বকুল ফুল গাছের চারা রোপণ করেন।

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সাহান আরা বানুর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, সারাদেশে মোট ৪৬৮২টি সেবাকেন্দ্রে থেকে একযোগে পালিত হচ্ছে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ ২০২০।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০২০
পিএস/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।