ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

ওয়েবিনারে বিশেষজ্ঞরা

টিকা নেওয়ার ২৮ দিন পর রক্ত দেওয়া যাবে

ইবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
টিকা নেওয়ার ২৮ দিন পর রক্ত দেওয়া যাবে প্রতীকী ছবি

ইবি (কুষ্টিয়া): করোনার টিকা নেওয়ার ২৮ দিন পর ডোনাররা রক্ত দিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য গবেষকরা। তবে খুব জরুরি হলে ১৪ দিন পরও রক্ত আদান-প্রদান করা যাবে।

সেক্ষেত্রে এক ডোজ বা দুই ডোজ নেওয়ায় কোনো সমস্যা হবে না। রক্ত দানের ক্ষেত্রে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ ১২ হতে হবে।  

বৃহস্প্রতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) রক্তদাতা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রক্তিমা আয়োজিত টিকা গ্রহণের পর রক্ত দান ও গ্রহণ বিষয়ক ওয়েবিনার ‘কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণের পর রক্তদান’-এ এসব কথা বলেন গবেষকরা।

রক্তিমার উপদেষ্টা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক মেহের আলীর সভাপতিত্বে ওয়েবিনারে মূল গবেষক হিসেবে বক্তব্য দেন দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজের ট্রান্সফিউশন মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. এম এ গফুর।  

গবেষক হিসেবে বক্তব্য দেন টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজের উপ-নির্বাহী পরিচালক ডা. মতিউর রহমান এবং ইবির বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক রেজওয়ানুল ইসলাম।

কোভিড-১৯ এর টিকা নেওয়ার পর রক্ত দান ও গ্রহণ করতে ওই নির্দেশনা এবং ভ্যাকসিন সম্পর্কে বিস্তারিত স্লাইড প্রেজেনটেশন দেন অধ্যাপক ডা. এম এ গফুর ও ডা. মতিউর রহমান। পাশাপাশি টিকা গ্রহণের পর রক্ত দান ও গ্রহণ সম্পর্কিত অন্য তথ্য জানতে ও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন।

এছাড়া গবেষকের বক্তব্যে অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, ‘ভ্যাকসিনের কাজ দুটি। প্রটেকশন ও মেমোারি সেল তৈরি। কোনোভাবেই রক্ত বাড়িতে বা অভিজ্ঞ ব্যক্তির অনুপস্থিতিতে ট্রান্সফিউশন করা যাবে না। একজন ডোনার যে পরিমাণে রক্ত দান করেন, এতে ভ্যাকসিন নেওয়ার পর শরীরে যে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়, তা অন্যের শরীরের জন্য যথেষ্ট নয়। যার শরীর থেকে যাচ্ছে তারও কোনো ক্ষতি হবে না। যদি ডোনারের অন্য কোনো বড় সমস্যা না থাকে তবে রক্ত আদান-প্রদানে কোনো সম্যসা নেই। ’

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মেহের আলী বলেন, ‘সারা দেশে বিভিন্ন কারণে মানুষের নিয়মিত রক্ত দান ও গ্রহণের প্রয়োজন পরে। করোনাকালীন বিভিন্ন দিক নিয়ে খুঁটিনাটি আলোচনা হলেও ভ্যাকসিন গ্রহণের পর রক্ত দান সম্পর্কে তেমন কোনো আলোচনা চোখে পরেনি। এই বিস্তর আলোচনাগুলো রক্ত দাতাদের উৎসাহিত করবে ও জনসচেতনতা বৃদ্ধি করবে। ’

ওয়েবিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন রক্তিমার উপদেষ্টা, ইবির হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের অধ্যাপক জাকির হোসেন, রক্তিমার কার্যক্রম তুলে ধরেন সংগঠনটির সভাপতি সাকিব সারওয়ার। উপস্থাপনা করেন সংগঠনটির সদস্য উম্মে হাবিবা হ্যাপি।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
জেএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa