ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ০৪ রজব ১৪৪৪

রাশিফল

পেশার উন্নতিতে বাস্তু যোগ

জ্যোতিষী রুবাই | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৪
পেশার উন্নতিতে বাস্তু যোগ

প্রেম, বিয়ে, অর্থপ্রাপ্তিসহ জানুন আপনার ভবিষ্যৎ!

বাংলানিউজ ও বাংলানিউজ রাশিফল পাঠককে সব সময় দিতে চায় ভিন্নতার স্বাদ। কারণ, পাঠকের চাহিদাকে আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেই।



বাংলানিউজের অগণিত পাঠকের চাহিদা বিবেচনায় তাই জ্যোতিষ রুবাইর নেতৃত্বে ভারতীয় জ্যোতিষ শাস্ত্রের একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল নির্বাচিত করেছি আমরা। এই বিশেষজ্ঞ প্যানেল আপনার পাঠানো তথ্য-উপাত্ত ও আপনার সমস্যা ঘেঁটে মেটাচ্ছে মনে জমে থাকা সব প্রশ্নের উত্তর।

আমরা এরই মধ্যে অনেক সাড়া পেয়েছি। দেশ-বিদেশ থেকে বিভিন্ন জন জানছেন তাদের কাঙ্ক্ষিত বিষয়াদি। পাঠকের চাহিদা ও সাড়ার কথা বিবেচনা করে আরো সহজসাধ্য করা হয়েছে আমাদের পদ্ধতি। যারা প্রেম, বিয়ে, সংসার, জটিল সমস্যা, বাস্তুদোষ, রাহুদোষ প্রভৃতি জানতে চান, তারা মেইলে আমাদের জানান।

রাশি, লগ্ন, গণ, তিথি, বাস্তুশাস্ত্রসহ মনের বিভিন্ন প্রশ্নের অবসান ঘটাতে চান, তারা যোগাযোগ করুন এই মেইলে:
[email protected]

ফিরতি মেইলে জানানো হবে বিস্তারিত নিয়ম-কানুন। এতে তরুণ-তরুণীসহ সব বয়সীদের কথা বিবেচনা করে নতুন কিছু সুযোগ থাকছে। সব জেনে ফের মেইল করলে নির্দিষ্ট সময় পর জানতে পারবেন আপনার কাঙ্ক্ষিত ফলাফল।

অফিসে যথেষ্ট ভালোভাবে কাজ করা সত্ত্বেও উন্নতি হচ্ছে না? কিংবা প্রমোশন বা ইনক্রিমেন্টের সময় আপনার করা ভালো কাজের ছাপ পড়ে না কর্মকর্তাদের মনে।

পরিশ্রম, মনোযোগ ও কাজের প্রতি ভালোবাসা নিঃসন্দেহে কর্মক্ষেত্রে উন্নতির সহায়ক। কিন্তু ভাগ্য সঙ্গে না থাকলে পুরোটাই মাটি।

দেখা যায়, সারা বছর খেটে কাজ করলেন আপনি, আর আসল সময় সেই ভালো কাজের সুফল পেয়ে গেল অন্য কেউ।

কখনও ভেবে দেখেছেন কি এরকম কেন হয়? কেন কঠোর পরিশ্রম করা সত্ত্বেও কর্মক্ষেত্রে আপনার প্রশংসা নেই? এর উত্তর লুকিয়ে থাকতে পারে আপনার অফিসের মধ্যেই। আর সেটার সমাধান লুকিয়ে আছে বাস্তু শাস্ত্রে।

মনে হতেই পারে এতোদিন পর্যন্ত আপনি জেনে এসেছিলেন বাস্তু শাস্ত্র  বাসগৃহে শান্তি, স্বাস্থ্য, সমৃদ্ধি বজায় রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু জেনে রাখুন অফিসেও বাস্তু পরামর্শ মানলে উন্নতি অবধারিত।

বিভিন্ন পেশা অনুযায়ী কয়েকটি বাস্তু টিপস নিয়ে নিচে আলোচনা করা হল।

যাদের কাজের সঙ্গে যুক্ত কৃষ্টি বা কলা যুক্ত। যেমন লেখক, কপি রাইটিং, ইন্টিরিয়র ডিজাইনিং, বাড়ির নক্সা তৈরি, পেজ ডিজাইনিং-এর মতো সৃজনশীল পেশায় যারা যুক্ত, তাঁদের বসার জায়গা অফিসের দক্ষিণ-পশ্চিম কোণে থাকাটা সবচেয়ে উপযুক্ত। আর তাঁরা নিজেরা বসবেন পূর্ব দিকে মুখ করে। এর পাশাপাশি ডেস্কে কোনও ছোট গাছ রাখতে পারেন।

যারা বিপণন বা বাজার তৈরি অথবা বিঞ্জাপন, প্রচারের পেশায় যুক্ত তারা সাধারণত বেশিক্ষণ অফিসে থাকেন না। এমন  ব্যক্তিরা তাঁদের বসার জায়গা রাখুন দক্ষিণ দিকে এবং তাদের নিজেদের বসতে হবে উত্তর দিকে মুখ করে। এর ফলে তাদের কাজ করার সুযোগ আরও বাড়বে। এর পাশাপাশি, তাদের বসার চেয়ারটি খয়েরি অথবা বাদামি রঙের হলে বাস্তু মতে অতিরিক্ত উপকার পাবেন।

পূর্ব দিকে বসার টেবিল রাখলে সরাসরি বিক্রয়ের সাথে যুক্ত চাকুরীজীবীরা নিশ্চিতভাবে কাজে উন্নতি করবেন। তারা নিজেরা বসবেন পশ্চিম দিকে মুখ করে। টেবিলে তাদের প্রিয়জনের ছবি বা নিদেনপক্ষে ক্লিপ বোর্ডে প্রিয়জনের নাম সেটে রাখলে তা অতিরিক্ত শুভ শক্তির সঞ্চার ঘটাবে।

বরিষ্ঠ পরিচালকরা যারা অফিসে গুরুত্বপূর্ণ নীতি নির্ধারকের ভূমিকায় থাকেন। এদের অনেক সিদ্ধান্তের ওপর প্রতিষ্ঠানের ভালোমন্দ জড়িত। তাই এদের কাজের জায়গায় শুভ শক্তির বিকাশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

অফিসে এদের বসার আদর্শ জায়গা উত্তর-পূর্ব কোণ। তার সঙ্গে এরা নিজেরা যদি পশ্চিম দিকে মুখ করে বসেন, তাহলে তার শুভ প্রভাব বৃদ্ধি পাবে। বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে দেখা যাবে সফলতা।

যে কোনও সংস্থার প্রধান স্তম্ভ তার ম্যানেজাররা। এরাই যে কোনও অফিসের নীতি সঠিকভাবে পালিত হচ্ছে কিনা, তা দেখাশোনা করেন। নতুন সিদ্ধান্তকে কাজে পরিণত করতেও এরা প্রধান সহায়ক। বাস্তু মতে অফিসে এদের বসার আদর্শ জায়গা হল পশ্চিম দিক। এরা নিজেরা বসবেন পূর্ব দিকে মুখ করে। এর পাশাপাশি, ডেস্কে ধার্মিক কোনো চিহ্ন রাখতে পারলে আরও ভালো।

এই টিপস গুলি মেনে নিজের অফিসটি সাজিয়ে নিন। নিজেই পরিবর্তন অনুভব করতে পারবেন ঠিক পরের দিন থেকেই।

বাংলাদেশ সময়: ০০০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa