ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

কৃষি

চাহিদার তুলনায় কৃষি উৎপাদন যথেষ্ট নয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১০ ঘণ্টা, জুন ২২, ২০১৮
চাহিদার তুলনায় কৃষি উৎপাদন যথেষ্ট নয় আলোচনা সভায় অর্থমন্ত্রী। ছবি: বাংলানিউজ

কৃষিতে বাজেট ও বিনিয়োগ কম থাকলেও উৎপাদন বেশি। তবে এ উৎপাদন চাহিদার তুলনায় যথেষ্ট নয়।

শুক্রবার (২২ জুন) কৃষিগবেষণা কাউন্সিল মিলনায়তনে বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতি আয়োজিত ‘২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পর্যালোচনা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।  

অর্থমন্ত্রী বলেন, কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য আরও গবেষণা প্রয়োজন।

গবেষণার আলোকে আমাদের কৃষকদের নির্দেশনা দিতে হবে। তারা অভিজ্ঞতার আলোকে দেশীয় উৎপাদন বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। তাদের একবার কাজ বুঝিয়ে দিলে তারা অনেক ভালো করতে পারে।  

মুহিত বলেন, আগে একবার ফসল উৎপাদন হতো, এখন তিনবার হয়। দেশে ভুট্টার উৎপাদন বেশ ভালো। তবে আবহাওয়া সমস্যার কারণে গমের উৎপাদন তুলনামূলক খারাপ। গমের স্থান আমরা ভুট্টার মাধ্যমে পূরণ করতে পারি। এখন বছরে ২০ লাখ টন ভুট্টা উৎপাদন হচ্ছে সেটা ৫০ লাখ টনে নিয়ে যেতে চাই।  
সিনিয়র সচিব ড. শাসুল আলম বলেন, প্রস্তাবিত বাজেট বিনিয়োগ ও ব্যবসা বান্ধব বাজেট। সরকার সামাজিক সুরক্ষা খাতকে বেশি অগ্রাধিকার দিয়েছে। এ খাতে বরাদ্দ ৬৪ হাজার ৬৬৫ কোটি টাকা যা মোট বাজেটের ১৩ দশমিক ৯২ শতাংশ। বাজেটে অসচ্ছল, অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধা বা তাদের সন্তান ও নাতি-নাতনিদের সহায়তায় ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।  

তিনি আরও বলেন, এই বাজেট উন্নয়নমূলক, এর মাধ্যমে গ্রামের অর্থনীতি আরও মজবুত হবে। আগামী ২০২০ সালের মধ্যে চরম দারিদ্রের হার ৮ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনার উদ্দেশ্যে এই বাজেট পেশ করা হয়েছে।  

কৃষি অর্থনীতিবিদ সমিতির সভাপতি সাজ্জাদুল হাসানের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক ছিলেন অর্থনীতিবিদ ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. এম এ সাত্তার মণ্ডল।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৬ ঘণ্টা, জুন ২২, ২০১৮
ইএআর/এনএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa