ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

স্বর্ণ চোরাচালান

বিমানের পর এবার দৃষ্টি কাস্টমসের দিকে

ইমরান আলী, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০১৪
বিমানের পর এবার দৃষ্টি কাস্টমসের দিকে ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম/ ফাইল ফটো

ঢাকা: স্বর্ণ চোরাচালানে বিমানের রাঘববোয়ালদের গ্রেফতারের পর এবার দৃষ্টি কাস্টমসের দিকে। শাহজালাল দিয়ে স্বর্ণ চোরাচালানের নিয়ন্ত্রক হিসেবে কয়েকজন কাস্টমস কর্মকর্তাদের নাম এখন গোয়েন্দাদের হাতে রয়েছে।

নামগুলো যাচাই বাছাই করে নির্দিষ্ট তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে গ্রেফতার অভিযানে নামবেন তারা।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এদিকে বুধবার আটককৃত বিমানের ডিজিএমসহ পাঁচজনকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করছে গোয়েন্দা পুলিশ। তাদেরকে চারদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

বিমানবন্দর কাস্টমসের সহকারী কমিশনার (প্রিভেনটিভ) রুহুল আমীন বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের মধ্যেও যদি কেউ স্বর্ণ চোরাচালানি থাকে তবে সেও গ্রেফতার হোক আমরা চাই। আমরা চাই বিমানবন্দর দিয়ে সব ধরনের চোরাচালান বন্ধ হোক।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি সূত্র বাংলানিউজকে জানায়, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ব্যবহার করে কয়েকটি চক্র দীর্ঘদিন স্বর্ণসহ নানা ধরনের পণ্য চোরাচালান করে আসছে। এছাড়াও এই চক্রটি অর্থ পাচারের সঙ্গেও জড়িত।

বিমানের কর্মকর্তাদের যোগসাজশ করে চক্রটি চলতি বছরেই হাজার কোটি টাকারও বেশি স্বর্ণ পাচার করে এসেছে। পাশাপাশি এই চক্রটি কর ফাঁকি দিয়ে দেশে বিভিন্ন পণ্য নিয়ে আসছে।

সূত্র জানায়, কাস্টমসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা স্বর্ণ ও টাকা পাচারের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। ইতোমধ্যে কয়েকজনের নামও পাওয়া গেছে।

সূত্রটি জানায়, বিমানের কেবিন ক্রু মাজাহারুল আবসার রাসেল তার জবানবন্দিতে বিমান কর্মকর্তাদের নাম ছাড়াও স্বর্ণ চোরাচালানি গডফাদারদের সহায়তাকারী কতিপয় অসাধু কাস্টমস কর্মকর্তাদের নামও বলে দেন।    

সূত্র জানায়, তার দেয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করে বিমানের ডিজিএম ইমদাদ, সিডিউলিং চিফ অফ ক্যাপ্টেন শহিদ, ম্যানেজার মোজাম্মেল, ঠিকাদার পলাশসহ ৫ জনকে আটক করা হয়।

সূত্র জানায়, ওই পাঁচজনকে আটকের পর বর্তমানে অন্যান্যদের ব্যাপারেও খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। সঠিক তথ্য উপাত্ত পাওয়ার পর তাদেরও আইনের আওতায় নেয়া হবে।

এদিকে আটককৃতদের রিমান্ডের ৪ দিনের মধ্যে প্রথম দিন অতিবাহিত হয়েছে। তাদেরকে স্বর্ণ চোরাচালান সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের নিকট থেকেও কিছু তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। তথ্যগুলো যাচাই বাছাইয়ের কাজ চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০১৪

** ফেঁসে যাচ্ছেন বিমানের আরো রাঘববোয়াল
** ধর্মপু্ত্রের স্বর্ণকাণ্ডে বেসামাল জামাল
** স্বর্ণ চোরাচালানে বিমানের ১০ কর্মকর্তা
** এ সেই প্রতাপশালী পলাশ!

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad