ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

বিনাশর্তে কাজে ফিরলেন ইউনাইটেডের ১৪ বৈমানিক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০১৫
বিনাশর্তে কাজে ফিরলেন ইউনাইটেডের ১৪ বৈমানিক

ঢাকা: বিনাশর্তে কাজে ফিরলেন ইউনাইটেডের এয়ারওয়েজের ১৪ বৈমানিক। ধর্মঘট ডেকে ৪দিনের মাথায় শর্তহীনভাবে শনিবার(২৫ এপ্রিল’২০১৫) কাজে যোগ দেন ধর্মঘটি বৈমানিকেরা।



এক মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে গত বুধবার থেকে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিলেন এয়ারওয়েজের ১৪ ক্যাপ্টেন।   

তবে ধর্মঘট সত্ত্বেও শুক্রবার(২৪ এপ্রিল) থেকে বাইরে থেকে বৈমানিক এনে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ।

ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের ডিজিএম(পিআর অ্যান্ড মার্কেটিং সাপোর্ট) কামরুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, কোনো ধরনের শর্ত ছাড়াই। শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় ধর্মঘটে থাকা ক্যাপ্টেনরা কাজে যোগ দিয়েছেন। তারা এরই মধ্যে ফ্লাইও শুরু করেছেন। এর ফলে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের ফ্লাইট কার্যক্রম পুরোপুরি সচল হলো।

ইউনাইটেড এয়ারওয়েজে ১৪ জন ক্যাপ্টেন ও ২৫ জন ফার্স্ট অফিসার রয়েছে। এর মধ্যে ফার্স্ট অফিসাররা কাজে করতে রাজি হলেও মূলত ক্যাপ্টেনদের কারণে ফ্লাইট বন্ধ ছিল। ধর্মঘটের কারণে গত দুই  দিনে অভ্যন্তরীণ রুটের সাতটি ও আন্তর্জাতিক রুটে ৫টি ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। নিজস্ব ক্যাপ্টেনদের ধর্মঘটের কারণে বাইরে থেকে শুক্রবার বৈমানিক এনে ফ্লাইট চালু করে।  

এয়ারওয়েজ সূত্রে জানা গেছে, মার্চ মাসের বেতনের দাবিতে গত ১৯ এপ্রিল এয়ারওয়েজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন তাসবিরুল আহমেদ চৌধুরীকে চিঠি দেয় ক্যাপ্টেনরা। এ সময় ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ ৩০ এপ্রিলের মধ্যে তাদের বকেয়া এক মাসের বেতন পরিশোধের অঙ্গীকার করে। বিষয়টি সেখানেই সমাধান হয়ে গেলেও বুধবার সকালে হঠাৎ করেই তারা ধর্মঘটের ডাক দেয়।  

এর আগে গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর ইউনাইটেডের সব ফ্লাইট চলাচল দু’দিন বন্ধ ছিল। ক্যাপ্টেন তাসবির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করলে এই অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়।

বর্তমানে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের বহরে দুটি এয়ারবাস ৩১০, পাঁচটি এমডি ৮৩, ৩টি এটিআর ৭২ ও একটি ড্যাশ ৮ ১০০সহ মোট ১১টি উড়োজাহাজ রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০১৫
আইএইচ/এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।