ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

বইমেলা

জমাটবাঁধা পাঠকের অপেক্ষায় প্রকাশকরা

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৫৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২০
জমাটবাঁধা পাঠকের অপেক্ষায় প্রকাশকরা

ঢাকা: প্রথম দিন থেকেই এবার বেশ গোছানো অমর একুশে গ্রন্থমেলা। বই অনুরাগী, লেখক ও প্রকাশকের বছরজুড়ে প্রতীক্ষা শেষে পার হয়েছে মেলার চতুর্থ দিন। তবে সেই অর্থে পাঠকের পদচারণায় মুখর হয়নি মেলা। হাতে গোনা কিছু স্টল বা প্যাভিলিয়নের সামনে পাঠক চোখে পড়লেও অধিকাংশই পাঠকশূন্য। অধিকাংশ স্টলে এখনো মিলছে না প্রকাশনা সংস্থাগুলোর ক্যাটালগ। তেমনিভাবে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বই মেলায় না এসে রয়ে গেছে ছাপাখানায়।

বুধবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মেলার বাংলা একাডেমি অংশে কথা হয় আলম হোসেনের সঙ্গে। হাতে কিছু বইয়ের ব্যাগ নিয়ে ঘোরা এই পাঠক বললেন, মেলার এই সময়টা বেশ ফাঁকা থাকে।

ফলে স্টলে ভিড় কম থাকায় সময় নিয়ে দেখে বই কেনা যায়। যেহেতু বই কিনতে আসি, তাই মেলায় প্রথম দিকেই চলে এলাম।

মেলার সার্বিক অবস্থা নিয়ে ইত্যাদি গ্রন্থপ্রকাশের প্রকাশক আদিত্য অন্তর বলেন, এখনও সেই অর্থে পাঠকের আগমন ঘটেনি বইমেলায়। ঢিলেঢালাভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। অন্যান্য বছর শুরুর দিকেই ব্যাপক পাঠক সমাগম না ঘটলেও এবারের মতো এতটা খরা যায়নি। এছাড়া বাণিজ্যমেলার সময় বাড়ানোর প্রভাবটিও পড়েছে বইমেলায়। আশা করছি আগামী শুক্রবার থেকে জমে উঠবে মেলা।

বাংলা একাডেমির তথ্যমতে বুধবার অমর একুশে গ্রন্থমেলায় নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে ৯৫টি। এরমধ্যে অনুপম প্রকাশনী থেকে সৌমেন সাহার বিজ্ঞান বিষয়ক বই ‘আকাশ দেখা ভারি মজা’, অন্য প্রকাশ থেকে শিহাব শাহরিয়ারের কবিতার বই ‘অদৃশ্য গুচ্ছ’,  হক ফারুক আহমেদের ‘মেঘদরিয়ার মাঝি’, অনন্যা থেকে আসিফ নজরুলের প্রবন্ধগ্রন্থ ‘আওয়ামী আমল’, কথা প্রকাশ থেকে মুনতাসীর মামুনের ইতাহাস বিষয়ক গ্রন্থ ‘স্মৃতিময় ঢাকা’, হাসান আজিজুল হকের প্রবন্ধগ্রন্থ ‘লেখা না-লেখা’, সরলরেখা প্রকাশনা থেকে আল মাহমুদের উপন্যাস ‘রাগিনী’ এবং ‘সহোদরা’, বিভাস থেকে মহাদেব সাহার ‘মুজিব সমগ্র’, ইকরি মিকরি প্রকাশন থেকে ধ্রুব এষের ‘অং বং চং’, মোজাম্মেল হক নিয়োগীর ‘পাখিদের খুশির দিন’ এবং গ্রন্থকুটির থেকে মোজাফফর হোসেন সম্পাদিত অনুবাদ গ্রন্থ ‘বিশ্বসাহিত্যের শ্রেষ্ঠ প্রবন্ধ’ উল্লেখযোগ্য।

বিকেল ৪টায়  গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় অজয় দাশগুপ্ত রচিত বঙ্গবন্ধুর আন্দোলন কৌশল ও হরতাল শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। এতে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সুভাষ সিংহ রায়। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন নূহ-উল-আলম লেনিন এবং আবু সাঈদ খান। লেখকের বক্তব্য প্রদান করেন অজয় দাশগুপ্ত। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রামেন্দু মজুমদার।

আলোচনা শেষে কবিকণ্ঠে কবিতা পাঠ করেন কবি আলতাফ হোসেন, কবি জাহিদ হায়দার, কবি ফারহান ইশরাক ও কবি রনজু রাইম। আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী এনামুল হক বাবু, ফয়জুল আলম পাপ্পু, ও নায়লা তারান্নুম চৌধুরী। সংগীত পরিবেশন করেন ফাতেমা-তুজ-জোহরা, সুজিত মোস্তফা, এ কে এম শহীদ কবীর পলাশ, সম্পা দাস ও মো. মেজবাহ রানা।

এছাড়া বিকেলে লেখক বলছি অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন বই নিয়ে আলোচনা করেন কথা সাহিত্যিক মোহিত কামাল, স. ম. শামসুল আলম, সাকিরা পারভিন সোমা এবং রাহেল রাজিব।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২০
এইচএমএস/এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa