ঢাকা, সোমবার, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

জলবায়ু ও পরিবেশ

সিলেট অঞ্চলের বন্যাপ্রবণ নদ-নদীর পানি দ্রুত বাড়ার আভাস

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২১ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০২২
সিলেট অঞ্চলের বন্যাপ্রবণ নদ-নদীর পানি দ্রুত বাড়ার আভাস ফাইল ছবি

ঢাকা: সীমান্তবর্তী ভারতীয় অঞ্চলগুলোতে অতিভারী বর্ষণের ফলে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বন্যাপ্রবণ নদ-নদীর পানি দ্রুত বাড়ার আভাস রয়েছে। ইতোমধ্যে সুরমার পানির সমতল বিপৎসীমার ওপরে রয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র শনিবার (১৪ মে) এমন আভাস দিয়েছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানিয়েছেন, উত্তরাঞ্চলের ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, ধরলা, দুধকুমার ও তিস্তা নদীর পানি সমতল বাড়ছে, যা রোববার (১৫ মে) পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

গঙ্গা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল রয়েছে, অপরদিকে পদ্মা নদীর পানি সমতল বাড়ছে। এ পরিস্থিতি রোববার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া সংস্থাগুলোর গাণিতিক মডেলভিত্তিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, সোমবার (১৬ মে) পর্যন্ত দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং তৎসংলগ্ন ভারতের আসাম, মেঘালয় ও হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশের কতিপয় স্থানে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি সমতল বাড়ছে, যা অব্যাহত থাকতে পারে। একই সঙ্গে প্রধান নদীগুলোর (সুরমা, কুশিয়ারা, ভােগাই-কংস, ধনু-বাউলাই, মনু, খােয়াই নদীর পানি সমতল কতিপয় পয়েন্টে সময়বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে।

রোববার নাগাদ দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার কতিপয় স্থানে পানি সমতল বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে। ইতোমধ্যে সুরমার পানি কানাইঘাটে বিপৎসীমার ৯৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পাউবো জানিয়েছে, তাদের পর্যবেক্ষণাধীন বিভিন্ন নদ-নদীর ১০৯টি পয়েন্টের মধ্যে শনিবার পানির সমতল বেড়েছে ৮৮টি পয়েন্টে, কমেছে ১টিতে। অপরিবর্তিত রয়েছে চারটি পয়েন্টের পানির সমতল। আর চারটি পয়েন্টের তথ্য পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২০২০ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০২২
ইইউডি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa