ঢাকা, বুধবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ শাবান ১৪৪৫

কর্পোরেট কর্নার

শাহজালাল বিমানবন্দরের বলাকা এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জ সংস্কার করলো বার্জার

বিজনেস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২৩
শাহজালাল বিমানবন্দরের বলাকা এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জ সংস্কার করলো বার্জার

ঢাকা: সংস্কার শেষে ৩০ নভেম্বর উদ্বোধন করা হয়েছে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর টার্মিনালের বলাকা এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জ। বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড ও হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল ঢাকার সঙ্গে সফল অংশীদারিত্বের মাধ্যমে লাউঞ্জটিকে দেওয়া হয়েছে নান্দনিক রূপ।

 

এ বছরের শুরুর দিকে বিমানবন্দরের দ্বিতীয় তলায় ১০ হাজার বর্গফুটজুড়ে বিস্তৃত বলাকা এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জ সংস্কার করার দায়িত্ব বার্জার পেইন্টসের নতুন এবং পরীক্ষামূলক পরিষেবা বার্জার ডিজাইন স্টুডিওকে দেওয়া হয়। বার্জার ডিজাইন স্টুডিও টিম তাদের কর্মদক্ষতায় ও হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের বহু বছরের ঐতিহ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ পদক্ষেপের মাধ্যমে লাউঞ্জটির ইন্টেরিয়রে উদ্ভাবনী এবং নান্দনিক ডিজাইনে ফুটিয়ে তুলেছে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক সমৃদ্ধি। যার ফলে লাউঞ্জটি আকর্ষণীয় রূপ ধারণের পাশাপাশি সবার জন্য কার্যকর সব রকম সুযোগ-সুবিধাও নিশ্চিত করতে সক্ষম।  

এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. মোকাম্মেল হোসেন।  

সম্মানিত অতিথি হিসেবে সিভিল অ্যাভিয়েশন অথরিটি অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।  

এ ছাড়া অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেডের কোম্পানি সেক্রেটারি এস এম তরিকুল ইসলাম ও বার্জার পেইন্টসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।  

বলাকা লাউঞ্জের সংস্কার প্রকল্পে বার্জারের সংশ্লিষ্টতা প্রসঙ্গে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রূপালী চৌধুরী বলেন, বিমানবন্দর একটি দেশের প্রবেশদ্বার। তাই আন্তর্জাতিক পর্যটকরা যাতে আমাদের দেশ সম্পর্কে প্রথম দর্শনেই একটা ইতিবাচক ধারণা পায়, সেটা নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ্য, যা আমরা বলাকা লাউঞ্জকে নতুন রূপদানের মাধ্যমে নিশ্চিত করতে সক্ষম হয়েছি।    

হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল ঢাকার মহাব্যবস্থাপক অশ্বনি নায়ারের কণ্ঠে প্রতিধ্বনিত হয় বার্জারের সঙ্ড়ে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে প্রকল্পের সফল সমাপ্তির আনন্দ।  

তিনি বলেন, এ সংস্কার প্রকল্পটি গ্রাহকদের আমাদের কাজের মাধ্যমে আরও ভালো অভিজ্ঞতা দিতে দায়বদ্ধতার প্রতিফলন ঘটায়। এ ছাড়া লাউঞ্জে আসা আমাদের সম্মানিত অতিথিদের মনে যেন লাউঞ্জের ইন্টেরিয়র ডিজাইন ইতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি করে, সেটা নিশ্চিত করাও আমাদের উদ্দেশ্য।    

বার্জার ডিজাইন স্টুডিও চালু হয় ২০২২ সালের ডিসেম্বরে। স্টুডিওটি দেশব্যাপী ইন্টেরিয়র ডিজাইন পরিষেবা ছড়িয়ে দিতে সফলভাবে কাজ করে চলেছে। অভিজ্ঞ ইন্টেরিয়র ডিজাইনার এবং আর্কিটেক্টদের সমন্বয়ে গঠিত বার্জার ডিজাইন স্টুডিও সাশ্রয়ী মূল্যে পেশাদারিত্বের সঙ্গে সম্পূর্ণ ইন্টেরিয়র ডিজাইন পরিষেবা দিয়ে থাকে। বলাকা এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জ সংস্কার প্রকল্পে বার্জার ডিজাইন স্টুডিওর অংশগ্রহণ প্রতিষ্ঠানটির অগ্রযাত্রায় একটি মাইলফলক হিসেবে চিহ্নিত হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১১৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২৩
আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।