ঢাকা, শনিবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আদালত

সুনামগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
সুনামগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া হত্যা মামলায় সানি মিয়া (৩১) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রোববার  (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল-মামুন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত সানি জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত আবদাল মিয়ার ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৮ সালের ১৪ জুন রাত সোয়া ৮টার দিকে জগন্নাথপুর উপজেলার শিবগঞ্জ রোডে রাস্তার পূর্ব পাশে শাহরিন ভেরাইটিজ স্টোর নামে মুদি দোকান ব্যবসায়ী ফেরদৌসকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে খুন করা হয়। এসময় ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে রাস্তায় তার দোকানের চাবি পড়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয়। পরে ফেরদৌসকে খোঁজাখুঁজি শুরু করলে পাশের ঝোপ থেকে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। এসময় ফেরদৌসের পাশেই ধারালো অস্ত্র হাতে সানি দাঁড়িয়ে ছিলেন। ভাইয়ের খারাপ অবস্থা দেখে রাজন তাকে বাঁচাতে গেলে ঘাতক সানি তাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যান। গুরুতর আহতাবস্থায় ফেরদৌস ও রাজনকে উদ্ধার করে তাদের বাড়িতে নিয়ে গেলে ফেরদৌসের মৃত্যু হয় এবং রাজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।  

এ ঘটনায় ফেরদৌস ও রাজনের বড় ভাই শাহীন মিয়া বাদী হয়ে পরের দিন ১৫ জুন জগন্নাথপুর থানায় সানি, সাজ্জাদ, আনোয়ার, নূর আলম, আজম ও রবির নাম উল্লেখ করে তাদের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ সানির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগ) দাখিল করে।  

সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও শুনানি শেষে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় বুধবার মামলার প্রধান আসামি সানিকে যাবজ্জীবন ও অর্থদণ্ড দেন আদালত। একই সময় নির্দোষ প্রমাণ হওয়ায় অভিযুক্ত অপর পাঁচজনকে মামলা থেকে খালাস দেওয়া হয়।  

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ জিয়াউল ইসলাম এবং আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. আজাদুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট আজমল হোসেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
এসআরএস 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa