ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আদালত

কুষ্টিয়ায় শিশু অপহরণ দায়ে নারীর যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০
কুষ্টিয়ায় শিশু অপহরণ দায়ে নারীর যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ায় শিশু অপহরণ মামলায় বেদেনা খাতুন ওরফে লিমা (৩৮) নামে এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন। এসময় আদালতে আসামি উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত বেদেনা খাতুন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি পূর্ব মণ্ডলপাড়া গ্রামের চাঁদ আলীর মেয়ে।  

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টায় খলিশাকুন্ডি গ্রামের ছমির আলীর স্ত্রী বিনা খাতুন তার ছয় মাস বয়সী শিশুপুত্র কর্ণকে ঘরের বারান্দায় শুইয়ে রেখে গৃহস্থালীর কাজে বাড়ির বাইরে ব্যস্ত ছিলেন। এসময় আসামি বেদেনা খাতুনসহ অপর তিন সহযোগির যোগসাজসে কর্ণকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যান। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা ছমির আলী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আইনে বেদেনা খাতুনসহ চার জনের নামোল্লেখসহ দৌলতপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে একই বছরের ৩০ নভেম্বর আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করে পুলিশ।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) আব্দুল হালিম বাংলানিউজকে জানান, দীর্ঘ সাক্ষ্য শুনানি শেষে আসামি বেদেনা খতুনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীত প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবনসহ ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন। একই মামলায় অভিযুক্ত অন্য তিন আসামি ঠেকারী খাতুন, চাঁদ আলী ও আব্দুর রশিদ নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa