ঢাকা, শনিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৮, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আদালত

কাউখালীতে ডাকাতি মামলায় পাঁচজনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩১১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০
কাউখালীতে ডাকাতি মামলায় পাঁচজনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড

পিরোজপুর: পিরোজপুরের কাউখালীতে ডাকাতি মামলায় পাঁচজনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া নির্দোষ প্রমাণ হওয়ায় একজনকে দেওয়া হয়েছে বেকসুর খালাস।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পিরোজপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্দুল মান্নান এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কাউখালী উপজেলার কাঁঠালিয়া গ্রামের কামরুল ইসলাম (২৮), একই উপজেলার মেগপাল গ্রামের আরিফ হোসেন (২৮), একই জেলার নেছারাবাদ উপজেলার সাগরকান্দা গ্রামের আরিফ (৪২) ও আতিক (৩৮) ও ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার উত্তর তারাবুনিয়া গ্রামের মো. আনিস (৩৩)।

 

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ২৬ জুলাই দিনগত রাতে কাউখালীতে নজরুল ইসলাম খান নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষকের ঘরের জানালার গ্রিল কেটে  ভেতরে ঢুকে ধারালো অস্ত্রের মুখে তাকে ও তার স্ত্রীকে জিম্মি করে ১০ হাজার টাকা ও ৬ ভরি স্বর্ণালঙ্কারসহ মামলামাল লুট করে নিয়ে যায় পাঁচ/ছয়জন ডাকাত। এ ঘটনার দু’দিন পর ২৮ জুলাই  ভুক্তভোগী নজরুল বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে কাউখালী সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে এ মামলায় কামরুল ইসলাম ও আরিফ হোসেন নামে দু’জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ২০১৩ সালের ২৫ মার্চ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। সাক্ষ্য ও শুনানি শেষে অভিযোগ প্রামাণিত হওয়ায় পাঁচ ডাকাতকে দণ্ড এবং নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় মিলন হাওলাদার নামে একজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া দেন আদালত।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) খান মো. আলাউদ্দিন।

বাংলাদেশ সময়: ২২১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa