ঢাকা, শনিবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

লাকি গ্রাউন্ড, গ্যালারি ভর্তি দর্শক, পথ হারাবে না টাইগাররা

আবদুল্লাহ আল মামুন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩২ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০১৪
লাকি গ্রাউন্ড, গ্যালারি ভর্তি দর্শক, পথ হারাবে না টাইগাররা ছবি: সোহেল সরওয়ার/ বাংলানিউজটোয়েন্টফোর.কম

চট্টগ্রাম: শারমিন ইসলাম। গৃহিণী।

মুখে লাল-সবুজের উল্কি । হাতে জাতীয় পতাকা। নগরীর আগ্রাবাদ থেকে সপরিবারে এসেছেন স্টেডিয়ামে। বললেন,‘ঘরের মাঠে প্রিয় দলের খেলা না দেখেতো আর বসে থাকতে পারি না। তার উপর বিশ্বকাপের আসর। তাই গ্যালারিতে বসে সমর্থন জানাতে সবাইকে নিয়ে চলে এসেছি। ’

শুধু শারমিনই নন, টাইগারদের খেলা উপভোগ করতে স্টেডিয়ামে জড়ো হচ্ছে চট্টগ্রামের ক্রিকেট পাগল লোকজন। কেউ খেলা দেখতে, কেউ বা শুভ কামনা জানাতে। ম্যাচ শুরু না হওয়ার আগেই কানায় কানায় ভরে উঠতে শুরু করেছে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম। প্রত্যাশাও একটাই। জয়। বাড়তি প্রত্যাশা ঘরের ছেলে তামিমের প্রতি। বিকাল থেকে ভিড় জমতে শুরু করে স্টেডিয়ামের আশপাশে।
BBTG_1_
ইপিজেডে কাজ করেন মুহিত। টিকেট পাননি। তবুও ছুটে এসেছেন স্টেডিয়ামে। বললেন,‘টিকেট পায়নি তাতে কি? টাইগাররা ‍মাঠে লড়বে আমরা মাঠের বাইরে থেকে তাদের সমর্থন দিয়ে যাব। চট্টগ্রাম লাকি গ্রাউন্ড। এ চট্টগ্রামেই প্রথম টেস্ট জয় পায় বাংলাদেশের। এখানেই ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ডকে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এ গ্রাউন্ডে জিতবে বাংলাদেশ এতে কোনো সন্দেহ নেই। ’

তবে কালোবাজারে টিকিট পাওয়ার কথা জানালেন মুহিত। বললেন,‘স্টেডিয়ামে সামনে টিকেট বিক্রি করছে এক শ্রেণীর দালাল। তা কেনার সামর্থ্য আমার নেই। ৫০ টাকার টিকেট দাম চায় এক হাজার টাকা। বাইরে কোনো দোকানে বসে খেলা দেখবো। ’
BBTG_3
স্টেডিয়ামের পাশে সড়কে বসে আসেন শফিউল। কাজ করেন একটি বেসরকারি ব্যাংকে। বললেন,‘সারাদিন অফিসে কাজ করেছি। তাই একটু জিরিয়ে নিচ্ছি। বাংলাদেশের খেলা শুরু হওয়ার আগে মাঠে ঢুকবো। নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশ ভালো করবে এটাতো স্বাভাবিক। তবে প্রত্যাশা ঘরের মাঠে তামিম ইকবাল যেন ভালো করে। ’
 
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষাথী কামরুল ইসলাম বলেন,‘তামিম চট্টগ্রামের ছেলে হিসেবে তার প্রতি বাড়তি প্রত্যাশা থাকে চট্টগ্রামবাসির। কখনো সে প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটে কখনো হতাশ করে। আশা করছি বিশ্বকাপের এ আসরে তামিম আমাদের সে চাওয়া পূরণ করবে। ’
BBTG_2
বাংলাদেশের ক্রিকেটের বহু সাফল্যের সাক্ষী চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম। খ্যাতি পেয়েছে ‘লাকি গ্রাউন্ড’ হিসেবেও। এ মাঠে এ পর্যন্ত টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলে ৩০ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত মাসে শ্রীলংকা-বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সিরিজের মাধ্যমে এ স্টেডিয়ামে অভিষেক হয় ক্রিকেটের এ সংক্ষিপ্ত ভার্সনের। ২০০৬ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারী এই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই তৃতীয় একদিনের ম্যাচের মধ্যেই আন্তর্জাতিক ভেন্যু হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে সাগর পাড়ের এ স্টেডিয়ামটি। একদিনের ম্যাচের অভিষেকের দুইদিন পর টেস্ট অভিষেক হয় এই স্টেডিয়ামটির।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এ আসরের ৩৫টি ম্যাচের মধ্যে ১৫টি অনুষ্ঠিত হবে এ ভেন্যুতে।   আসরের প্রথম পর্বে এ ভেন্যুতে বাংলাদেশ দলের ২টি খেলা অনুষ্ঠিত হবে। ২০ মার্চ হংকংয়ের বিপক্ষে।

লাকি গ্রাউন্ড। গ্যালারি ভর্তি দর্শক। পথ হারাবে না বাংলাদেশ। এমনটিই প্রত্যাশা ক্রিকেট প্রেমীদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa