ঢাকা, শনিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

ক্রিকেট

স্টেইন হামলায় প্রোটিয়াদের জয়

আবদুল্লাহ আল মামুন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১২৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৪
স্টেইন হামলায় প্রোটিয়াদের জয়

চট্টগ্রাম: শেষ ওভারে জয়ের জন্য ব্ল্যাক ক্যাপসদের প্রয়োজন মাত্র ৭রান। টি-টোয়েন্টি’র জন্য যা খুবই নগণ্য।

কিন্তু প্রোটিয়ারাও মরিয়া জয় তুলে নিতে। বোলিংয়ে আনলেন প্রোটিয়াদের সবচেয়ে ভয়ংকর অস্ত্র স্টেইনকে। ওভারের প্রথম ও পঞ্চম বলে তুলে নেন দু’উইকেট। শেষ বলে টেলরকে রান আউট করে জয়ের নায়ক হন ডেইল স্টেইন।

ম্যাচ শেষে ফাফ ডু প্লেসিসও বললেন তাই। ‘আমি সবসময় ভাবছিলাম স্টেইনই আমার ট্রাম্প কার্ড। তাই তাকে খেলায় ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন মনে করেছি। তার কাছ থেকে ভালো ফলাফলও পেয়েছি। ’ ৮৬ রানে অপরাজিত থাকা জেপি ডুমিনির কথা বলতেও ভুললেন না দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক।

৪ ওভারে ১৭ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের নায়ক ডানহাতি পেসার ডেইল স্টেইন। ম্যাচ সেরাও হবেন ডেইল স্টেইন। এমনটিই ভেবে নিয়েছিলো সবাই। কিন্তু ৫৭ বলে অপরাজিত ৮৬ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরা হন জেপি ডুমিনি।

তাই ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে স্বাভাবিকভাবেই ঘুরে ফিরে আসে এমন প্রশ্ন। জবাবও দিলেন ‍ডুমিনি নিজে। বললেন, ‘আমি ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হয়েছি শুনে কিছুটা সাইপ্রাইজড হয়েছি। কিন্তু আসলে পুরো ফলাফলটাই আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফসল। স্টেইন খুবই ভালো বোলার। শেষ ওভারে তিন উইকেট তুলে নেওয়াতে জয় সম্ভব হয়েছে। অবশ্য ইমরান তাহিরের চার ওভারও জয়ে বড় অবদান ছিল। ’

অবশ্য শুরুতেই ব্যাট করতে নেমে ৪২ রানে শীর্ষ তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বেকায়দায় পড়েন প্রোটিয়ারা। ৮৬ রানের দূর্দান্ত ইনিংস খেলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চ্যালেঞ্জিং স্কোর দাঁড় করান এ বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান।

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ফাফ ডু প্লেসিস বলেন,‘পরিকল্পনা মতো সবকিছু হয়েছে। বোলাররাও ভালো বল করেছে। যার কারণে চমৎকার জয় এসেছে। ’

শেষ বলে জয়ের কথা বলতে ভুললেন না প্রোটিয়া অধিনায়ক।

অন্যদিকে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করেছিল ব্ল্যাক ক্যাপরা। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা জয়ের ভিত দাঁড় করালেও শেষ ওভারে স্টেইন হামলায় সব চুরমার হয়ে যায়। ডিএল পদ্ধতি’র ফাঁদে ফেলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় তুলে নিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই ছিলো ব্ল্যাক ক্যাপরা। সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে হেরে খুবই হতাশ।

তারাও দুষলেন ওই স্টেইনকে। ম্যাচ শেষে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম বলেন, ‘খুব সহজে জয় তুলে নিতে পারতাম। শেষ ওভারে স্টেইনের কারণে তা পারিনি। ’

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যান মার্টিন গাপটিলও বললেন তাই। ‘তারা শেষটা দূর্দান্ত করেছে। শেষ ওভারে তিন উইকেট হারানো হতাশাজনক। ওই ওভারেই মূলত আমরা হেরে যায়। ’

প্রোটিয়াদের জয়ের নায়ক স্টেইনের প্রশংসাও করলেন গাপটিল। বললেন,‘স্টেইন বিশ্বমানের বোলার। ’

বাংলাদেশ সময়: ০১২৭ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa