ঢাকা, শনিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

ক্রিকেট

জয়ে ফিরল অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৩৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৪
জয়ে ফিরল অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা

সিলেট থেকে: প্রথম ম্যাচ নিউজিল্যান্ডের কাছে হারার পর শিরোপা ধরে রাখার জন্য জয়ের বিকল্প ছিল না অস্ট্রেলিয়ার মেয়েদের কাছে। বোলারদের নৈপুণ্যে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৯ উইকেটে ১১৫ রানে বেধে দিয়েছিল তারা।

কিন্তু লক্ষ্যে ছুটতে গিয়ে সুনেত্তে লবসারের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে হোঁচট খায় তারা। তবে এলিসে পেরির ব্যাটে ছয় বল বাকি থাকতে জয় ধরা দেয় বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হাতে। মঙ্গলবার এ গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে তারা জিতল ছয় উইকেটে।

প্রোটিয়া স্পিনার লবসার চার ওভারে ১৯ রান দিয়ে এক উইকেট নেন। তার কৃপণ বোলিংয়ে রানের গতিও কমতে থাকে অসিদের। আর ৫৬ রানের মধ্যে চার উইকেট হারায় তারা। অধিনায়ক মেজ ল্যানিং করেন মাত্র ৬ রান। আর অ্যালেক্স ব্ল্যাকওয়েল দ্বিতীয় সেরা ২৪ রানে আউট হন।

পেরি ২৯ বলে ৪১ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জেতান। ছয় চারে সাজানো এই ম্যাচসেরার ব্যক্তিগত ইনিংস। অপর প্রান্তে জেস ক্যামেরুন টিকে ছিলেন ২৭ রানে। ৬০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন তারা।

এর আগে টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল অস্ট্রেলিয়ান মেয়েরা। প্রথম বলেই প্রোটিয়া ওপেনার লিজেল লিকে জেস ক্যামেরুনের তালুবন্দি করান রেনে ফারেল। শুরুর মতো পুরো ম্যাচজুড়েই অসিরা উইকেট নেওয়ার উল্লাসে মেতেছিল। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানোয় রানের গতিও বাড়াতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটাররা।

তৃষা ছেত্তি সবচেয়ে বেশি ৩০ রান করেছেন। ২৮ বলের ইনিংসে চারটি বাউন্ডারি মেরেছেন তিনি। দ্বিতীয় সেরা ২০ রান করে রান আউট হন মারিজানে ক্যাপ।

এছাড়া দুই অঙ্কের ঘর ছুঁয়েছেন মিগনন ডু প্রিজ (১৪), শাবনিম ইসমাইল (১৩) ও গত ম্যাচে ৯০ হাঁকানো ডেন ভ্যান নাইকার্ক (১২)। সুন লুজ ৭ বলে তিন চার ও এক ছয়ে ১৯ রানে অপরাজিত ছিলেন।

এরিন ওসবোর্ন, ফারেল ও জুলি হান্টার দুটি করে উইকেট পান।

বাংলাদেশ সময়: ২২১৩ ঘণ্টা, ২৫ মার্চ ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa