ঢাকা, রবিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ মে ২০২২, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

উইন্ডিজের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার রোমাঞ্চকর জয় 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২০
উইন্ডিজের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার রোমাঞ্চকর জয় 

জয়ের জন্য তখনও ২৮ বলে ২৮ রান দরকার শ্রীলঙ্কার। হাতে রয়েছে টেল-এন্ডার ৩ উইকেট। এমন মুহুর্তে দুর্দান্ত বল করছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ্ও। ৪৫.৩ ওভারে ক্যারিবিয়ানরা পতন ঘটায় লঙ্কানদের অষ্টম উইকেটের। স্বাগতিকদের রান তখন ২৬২। এরপর লঙ্কানদের শেষ উইকেট পড়ে দলীয় ২৮৯ রানে। ততক্ষণে অবশ্য প্রতিপক্ষের সঙ্গে রান সমান করে ফেলে তারা। 

সেই দোলায়মান অবস্থা থেকে উইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা। ক্যারিবিয়ানদের দেওয়া ২৯০ রানের লক্ষ্য ৫ বল ও ১ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় দিমুথ করুনারত্নের দল।

এর আগে নির্ধারিত ৫০ ওভারে শাই হোপের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ২৮৯ রান করে উইন্ডিজ। জবাবে লঙ্কানরা ৪৯.১ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে করে ২৯০ রান।  

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) কলম্বোর সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে টসে জিতে কাইরন পোলার্ডদের ব্যাটিংয়ে পাঠায় শ্রীলঙ্কা। শুরুতে সুনীল আমব্রিসকে (৩) হারালেও উইন্ডিজের আশা হয়ে থাকেন হোপ। ইশুরু উদানার বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১৪০ বলে ১০ চারে ১১৫ রান করেন তিনি।    

এছাড়া ড্যারেন ব্রাভো (৩৯) ও রোস্টন চেজ (৪১) বড় অবদান রাখেন উইন্ডিজের স্কোরবোর্ডে। শেষদিকে জেসন হোল্ডারের ঝড়ো ১০ বলে ১২, কিমো পলের ১৭ বলে ৩২ এবং হেইডেন ওয়ালশের ৮ বলে ২০ রানের সুবাদের লড়াকু ইনিংস পায় ক্যারিবিয়ানরা।  

লঙ্কানদের হয়ে ১০ ওভারে ৮২ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন উদানা। একটি করে উইকেট নিয়েছেন নুয়ান প্রদীপ ও থিসারা পেরেরা।  

জবাব দিতে নেমে ওপেনিং জুটিতেই ১১১ রান করেন অভিষেক ফার্নান্দো ও অধিনায়ক করুনারত্নে। করুনারত্নে ব্যক্তিগত ৫২ রানে আউট হোন হোল্ডারের বলে। এরপর বেশিক্ষণ টিকেননি ফার্নান্দোও (৫০)। সেই ধাক্কা সামলে দলকে জয়ের দিকে নিয়ে চলেন কুশল পেরেরা (৪২) ও কুশল মেন্ডিস (২০)। কিন্তু সেট হয়ে তারা ফিরলে বিপদে পড়ে লঙ্কানরা।  

উল্লেখযোগ্য কিছুই করতে পারেননি অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস (৫)। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ব্যাট থেকে আসে ১৮ রান। তবে এমন সময় দাঁড়িয়ে ঝড়ো ব্যাটিং করে উল্টো ক্যারিবিয়ানদের ওপর চাপ সৃষ্টি করেন থিসারা পেরেরা। ২২ বলে ৩৩ রান করে তিনি আউট হোন আলজেরি জোসেফের বলে। লঙ্কানদের রান তখন ৭ উইকেটে ২৫৩।  

সেখান থেকে ম্যাচ বের করে নিয়ে আসেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। শেষদিকে টেল-এন্ডার উদানা (০), লক্ষণ সান্দাকানের (৩) সঙ্গ নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন তিনি। ৩৯ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৪২ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। মাঠে নামলেও কোনো বলের মুখোমুখি না হয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন প্রদীপ।  

চাপের মুখে দুর্দান্ত ব্যাট করে দলকে জয় এনে দিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন হাসারাঙ্গা।  

বাংলাদেশ সময়: ২০০৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০
ইউবি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa