ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

জাদেজার শেষের ঝড়ে কলকাতাকে হারাল চেন্নাই

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
জাদেজার শেষের ঝড়ে কলকাতাকে হারাল চেন্নাই

ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ বারবার হাতবদল হয়েছে। একবার যে কারণে জয় পেতে চেন্নাই সুপার কিংসকে অপেক্ষা করতে হয়েছে শেষ বল পর্যন্ত।

শেষদিকে নাটক জমিয়ে তোলেন চেন্নাইয়ের রবীন্দ্র জাদেজা ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের সুনীল নারাইন। তবে জাদেজা হার মানলেও হারেনি তার দল।

রোববার আবুধাবির শেষ জায়েদ স্টেডিয়ামে রোমাঞ্চকর লড়াই শেষে ২ উইকেটে জিতে নিয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।  

কলকাতার ছুড়ে দেওয়া ১৭২ রানের বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে চেন্নাইকে দারুণ শুরু এনে দেন দুই ওপেনার ঋতুরাজ কায়কোয়াড ও ফাফ ডু প্লেসি। দুজনের জুটিতে আসে ৭৪ রান। ২৮ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় ৪০ রানের ইনিংস খেলা ঋতুরাজকে বিদায় করেন ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল।  

এরপর মঈন আলীকে নিয়ে কিছুক্ষণ লড়াই করার পর বিদায় নেন ডু প্লেসিও। তবে প্রসিদ্ধের বলে লোকি ফার্গুসনের হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে এই প্রোটিয়া ব্যাটারের ব্যাট থেকে আসে ৩০ বলে ৪৩ রান। মূলত সেখান থেকে পথ হারাতে শুরু করে চেন্নাই।  

আম্বাতি রাইডু (১০) বিদায় নেওয়ার পর মঈন আলী (৩২) ও সুরেশ রায়না (১১) ক্রিজে থাকায় লড়াইয়ে ভালোভাবেই ছিল চেন্নাই। কিন্তু মাত্র ৪ রানের ব্যবধানে এই বাঁহাতি ব্যাটারও বিদায় নেন। আবারও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন মহেন্দ্র সং ধোনিও (১)। কিন্তু হাল ছাড়েননি রবীন্দ্র জাদেজা। শেষদিকে ৮ বলে ২২ রান করে চেন্নাইকে জয়ের পথে ঠেলে দেন এই বাঁহাতি অলরাউন্ডার। ১৯তম ওভারে ৫ বল খেলেই করেন ২১ রান।  

জাদেজা অবশ্য ম্যাচ শেষ করে আসতে পারেননি। শেষ ওভারে চেন্নাইয়ের দরকার ছিল ৪ রান। নারাইনের হাতে বল তুলে দেন কলকাতা অধিনায়ক মরগান। ওভারের প্রথম বলেই স্যাম কারেনকে (৪) বিদায় করেন ক্যারিবীয় স্পিনার। এরপর তৃতীয় বলে ৩ রান নিয়ে স্কোরে সমতা আনেন শার্দূল ঠাকুর। কিন্তু পরের বলে ডট দেওয়ার পর পঞ্চম বলেই জাদেজাকে লেগ বিফরের ফাঁদে ফেলেন নারাইন। তবে শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে কলকাতার সব আশা শেষ করে দেন দীপক চাহার।

বল হাতে ৩ উইকেট পেয়েছেন কলকাতার নারাইন। তবে ৪ ওভার বল ঘুরিয়ে খরচ করেছেন ৪১টি। এছাড়া ১টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন প্রসিদ্ধ, লোকি, বরুণ চক্রবর্তী এবং আন্দ্রে রাসেল।  

এর আগে রাহুল ত্রিপাঠীর ৩৩ বলে ৪৫ ও নিতীশ রানার ২৭ বলে অপরাজিত ৩৭ রানের ইনিংসে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৭১ রানের বড় সংগ্রহ পায় কলকাতা। এছাড়া শেষদিকে ১৫ বলে রানের ২০ রান ও দীনেশ কার্তিকের ১১ বলে ২৬ রানের ‘মিনি’ ঝড়ের গুরুত্বও কোনো অংশে কম নয়।

বল হাতে চেন্নাইয়ের জস হ্যাজেলউড ও শার্দূল ২টি করে উইকেট পান।  ১ উইকেট গেছে জাদেজার ঝুলিতে।

এই জয়ে ১০ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ফের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এলো চেন্নাই। সমান সমান ম্যাচ ও পয়েন্ট সত্ত্বেও নেট রান রেটের ব্যবধানে দুইয়ে নেমে গেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। আর ১০ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে কলকাতা।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa