ঢাকা, বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৮ মহররম ১৪৪৪

ক্রিকেট

ডমিঙ্গোর সঙ্গে চুক্তি নিয়ে যা বললেন পাপন

স্পোর্টস  করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২১
ডমিঙ্গোর সঙ্গে চুক্তি নিয়ে যা বললেন পাপন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের বাজে পারফরম্যান্সের পরও রাসেল ডমিঙ্গোর চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোয় বিস্মিত হয়েছিলেন অনেকে। প্রোটিয়া এই কোচকে বরখাস্ত করলে আইনি জটিলতায় পড়ে বড় অঙ্কের ক্ষতিপূরণ গুণার শঙ্কায় ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরেও দলের সঙ্গে থাকবেন তিনি। তবে ‘আপৎকালীন' কোচ হিসেবে তিনি থাকবেন দলের সঙ্গে। অবশ্য গত ১ ডিসেম্বর থেকে বিসিবির সঙ্গে তার দুই বছরের নতুন চুক্তি কার্যকর হয়ে যাওয়ার কথা। যে চুক্তির প্রথম এক বছর ‘গ্যারান্টি ড’বলে ডমিঙ্গোকে বড় অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বাধ্যবাধকতাও ছিল বিসিবির। তা না হলে গুণতে হতো এক লাখ ৮৭ হাজার ইউএস ডলার বা প্রায় ২ কোটি টাকার মতো।

ভিন্নরকম এক পরিস্থিতি তৈরি হওয়াতেই ডমিঙ্গোর সঙ্গে চুক্তি বাতিল করতে পারেনি বিসিবি। শনিবার (০৪ ডিসেম্বর) মিরপুরে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

পাপন বলেন, ‘বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে রাসেল ডমিঙ্গো আমাদের কাছে লিখিতভাবে জানায় যে তার একটা ভালো প্রস্তাব আছে। সে জানতে চাচ্ছিলেন যে আমরা তাকে টেনে নিবো নাকি নিবো না? যদি আমরা তাকে এক্সটেন্ড করি তাহলে সে থাকবে। আর যদি না করি তবে সে ঐ ঝুঁকির মধ্যে থাকবে না। তাহলে সে ঐ জায়গায় কমিটমেন্ট দিয়ে দেবে। এরকম একটা পরিস্থিতি ছিলো আরকি। আমরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেছিলাম, যতটুকু সম্ভব পারা যায়। এরপর আমরা একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছাই যে এ সময়ে আমরা কোনো কোচ পাবো না। আর যদি পাইও বিশ্বকাপের পরপর একজন নতুন কোচ আনবো কিনা এ নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। আমরা যাদের খুঁজছিলাম তাদের মধ্যে বেশিরভাগই আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত বুকড। এসব বিষয় চিন্তা করে বোর্ড সেসময় সিদ্ধান্ত নেয় তার মেয়াদ বৃদ্ধি করবে। ’ 

এদিকে মিডিয়া পাড়ায় গুঞ্জন চলছে ডমিঙ্গোর সঙ্গে ক্রিকেটারদের একটা দূরত্ব রয়েছে। এ প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘কোচের সঙ্গে দূরত্ব, মনমালিন্য আপনারা যেমন জানেন আমিও তেমন জানি। কিন্তু এটা আসল জায়গা থেকে বলতে হবে। তা না হলে লাভ নেই। শোনা যায় অনেক কিছু। কিন্তু আসল জায়গা থেকে যদি না বের হয় তাহলে কোনো লাভ নেই। অধৈর্য্য হওয়ার কিছু নেই। আমাদের হাতে জানুয়ারি মাসটা আছে। এই মাস পর আমরা যা যা সিদ্ধান্ত নেয়ার নেব। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২১
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa