ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

সেঞ্চুরিয়ান কনওয়েকে ফেরালেন মুমিনুল

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২২
সেঞ্চুরিয়ান কনওয়েকে ফেরালেন মুমিনুল

নতুন বছরের প্রথম দিন সকালেই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট লড়াইয়ে নেমেছে বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে ধাক্কা খেলেও টাইগার বোলারদের ছন্নছাড়া বোলিংয়ের সুযোগ নিয়ে উইকেটে জাঁকিয়ে বসেন কিউই টপ অর্ডার ব্যাটাররা।

এর মধ্যে সেঞ্চুরির দেখা পান ডেভন কনওয়ে। অবশেষে সেই কনওয়েকে ফিরিয়ে টাইগার শিবিরে স্বস্তি ফেরালেন মুমিনুল হক।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৮২.২ ওভারে স্বাগতিকদের প্রথম ইনিংসের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ২৩৩ রান।

বে ওভালের মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে শনিবার সিরিজের প্রথম টেস্টে টস জিতে বোলিং বেছে নেয় সফরকারীরা। তাসকিন, শরিফুল ও ইবাদতকে নিয়ে সাজানো টাইগারদের পেস আক্রমণের শুরুটাও ভালোই ছিল। তাসকিন ও শরিফুল দুজনেই সুইং আদায় করে নেন। তবে প্রথম সাফল্য পান চোট কাটিয়ে টেস্ট দলে ফেরা শরিফুল।

কিউই ওপেনার ও ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক টম ল্যাথামকে দিনের চতুর্থ ওভারেই বিদায় করেন শরিফুল। তার ভেতরে ঢোকা বল ল্যাথামের (১) ব্যাটের ভেতরের কানা ছুঁয়ে প্যাডে লেগে যায় পেছনে। আর ঝাঁপিয়ে তা এক হাতে তালুবন্দি উইকেটরক্ষক লিটন দাসে।  

ল্যাথাম বিদায় নেওয়ার পর উইকেটে থিতু হয়ে রানের ফোয়ারা ছোটান ইয়ং ও কনওয়ে। অথচ ইয়াং প্রথম রানের দেখা পান ২২ বল খেলে। কনওয়েও ২২ বলে রান করেন মাত্র ২। তবে ধীরে ধীরে হাত খুলতে শুরু করেন দুজনেই। ১০২ বলে জুটিতে ফিফটি রান আসে। প্রথম সেশনটা আর কোনো উইকেট হারাতে দেননি তারা।

দ্বিতীয় সেশনে কিছুটা মারমুখী হন কনওয়ে ও ইয়াং। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে ১০১ বলে ফিফটি তুলে নেন কনওয়ে। পরে ১৩১ বলে ফিফটির দেখা পান ল্যাথাম। দুজনের জুটিতে আসে ১৩৮ রান। এরপর মিরাজের বলে সিঙ্গেল নিতে গিয়ে নাজমুল হোসেন শান্তর থ্রোয়ে রানআউটের শিকার হন ইয়াং (৫২)।  

এরপর বিদায়ী টেস্ট খেলতে নামা রস টেইলরকে নিয়ে ফের ঘুরে দাঁড়ান কনওয়ে। দুজনের জুটি জমে উঠার পথে সেঞ্চুরি হাঁকান তিনে নামা কনওয়ে, দারুণ সঙ্গ দেন টেইলরও। দুজনের জুটিতে আসে ৫০ রান। সেঞ্চুরি হাঁকানো পথে ১৪টি চার ও ১টি ছক্কা হাঁকান কনওয়ে। তবে পরের ওভারেই শরিফুলের বলে কভারে থাকা সাদমান ইসলামের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন ৩১ রান করা টেইলর।

টেইলর বিদায় নিলেও হেনরি নিকোলসকে নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন কনওয়ে। দুজনের জুটিতে ৩৮ রানও আসে। পরিস্থিতি বুঝে বল হাতে তুলে নেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মুমিনুল। নিজের তৃতীয় ওভারেই সাফল্য পেয়ে যান এই পার্ট-টাইম স্পিনার। মুমিনুলের লেগ স্ট্যাম্পের বাইরের বলে ব্যাট ছোঁয়াতে গিয়ে উইকেটরক্ষক লিটনের হাতে ক্যাচ তুলে দিলে শেষ হয় কনওয়ের ২২৭ বলে ১৬ চার ও ১ ছক্কায় সাজানো ১২২ রানের ইনিংস।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa