ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

আগামী নির্বাচন নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা আমার পক্ষে অসম্ভব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭
আগামী নির্বাচন নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা আমার পক্ষে অসম্ভব আগামী নির্বাচন নিয়ে ভবিষ্যতবাণী করা আমার পক্ষে অসম্ভব

চট্টগ্রাম: আগামী জাতীয় নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে দাবি করলেও নির্বাচন নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ।

জাতীয় পার্টির সঙ্গে জোটের বিষয়ে সম্প্রতি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের একটি বক্তব্যের প্রসঙ্গে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ফখরুল ইসলাম কী বলেছেন সে সম্পর্কে আমার ধারণা নেই। তবে আমরা এককভাবে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েছি।

বুধবার(২৭ ডিসেম্বর) বিকেলে নগরীর রেডিসন ব্লুতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি।

‘আপাতত আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোটে আছি।

আগামীতে কী হবে, কিভাবে নির্বাচন হবে সে সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। ’

মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের বিষয়ে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি নির্বাচনে ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই সবাই আমাদের চাচ্ছে। কিন্তু আমরা কোথায় যাব, কিভাবে নির্বাচন করবো, সেটা ডিপেন্ড করবে আমাদের উপর। আমাদের কর্মীদের উপর, নেতাদের উপর। আমরা সিদ্ধান্ত নেব কিভাবে নির্বাচন করবো।

জাতীয় নির্বাচন নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে জাতীয় নির্বাচন নিয়ে এখন কথা বলা উচিত হবে না মন্তব্য করে এরশাদ বলেন, কারণ আওয়ামী লীগ আমাদের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী দল। আমরা সংগঠিত হচ্ছি। আমাদের ৩০০ প্রার্থী আছে। তবে কতজন প্রার্থী জয়ী হতে পারবে সে সম্পর্কে আমরা নিশ্চিত নই।

‘আমাদের কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ সৃষ্টি হয়েছে। আমার মনে হয় সুষ্টু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমরা ভাল করবো। ’

দেশের যুবসমাজে অসন্তোষ রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কারণ যুবকদের কর্মসংস্থান নেই। বিনিয়োগ নেই। তাই যুবসমাজ বিপথে চলে যাচ্ছে। অনেকে মাদকাশক্ত হয়ে পড়ছে। এটা আমাদের জন্য সুখকর নয়। জাতির জন্য লজ্জাজনক কথা। সরকারের প্রয়োজন বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে আসা, শিল্প কারখানা গড়ে তোলা। শিক্ষিত যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে না পারলে সমাজে যে অশান্তি সৃষ্টি হয়েছে তা আরও বৃদ্ধি পাবে।

নির্বাচন কমিশনের জন্য রংপুর সিটি নির্বাচন বড় পরীক্ষা ছিল উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, সেই পরীক্ষায় নির্বাচন কমিশন উত্তীর্ণ হয়েছে। রংপুরে আদর্শ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়েছে।   

‘আমার মনে হয় বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সুষ্ঠু নির্বাচন হলো’-বলেন এরশাদ।

এসময় সংসদ সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, মাহজাবীন মোরশেদ, দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সোলায়মান আলম শেঠ, ভাইস চেয়ারম্যান মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৪ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭
এমইউ/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa