ঢাকা, রবিবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ জুন ২০২২, ২৬ জিলকদ ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

বড়দিন উপলক্ষে মেতেছে কলকাতা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৩৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৪
বড়দিন উপলক্ষে মেতেছে কলকাতা ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কলকাতা: কেক, ফুল আর সান্টাক্লজের সঙ্গে বড় দিনকে বরণ করে নিচ্ছে কলকাতা। বড়দিনকে ঘিরে কলকাতার মূল রাস্তাগুলোকে সাজানো হয়েছে রঙিন বাতি, ক্রিসমাস ট্রি, নানা রঙের বেলুন দিয়ে।



কলকাতার সমস্ত চার্চগুলোকে বড়দিন উপলক্ষে বিশেষভাবে সাজানো হয়েছে। এছাড়া আয়োজন করা হয়েছে বিশেষ প্রার্থনার।

এসব চার্চে মোমের আলোর মাধ্যমে সাজানো হয়েছে যিশুর মূর্তি। আয়োজন করা হয়েছে ‘ক্যারেল’-এর।

এদিকে, বড়দিনে কলকাতার প্রধান আকর্ষণ পার্কস্ট্রিট অঞ্চল কার্নিভালের রূপ নিয়েছে। রাস্তার প্রতি অংশ আলোয় আলোয় নানা সাজে সেজে উঠেছে। রেস্তোরাগুলোতে বুধবার (২৪ ডিসেম্বর) রাত থেকেই অপেক্ষারত সারিবদ্ধ মানুষদের  ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

এছাড়া কলকাতার কেকের দোকানগুলোতে লম্বা লাইন চোখে পড়ছে। প্রচুর ভিড় চোখে পড়েছে কলকাতার বিখ্যাত ফ্লুরিজ, ১১২ বছরের পুরান নাহুম-এর মত ঐতিহ্যশালী কেকের দোকানে। সেই লাইনে আছে ছোট থেকে বড় অনেকেই। কেউ কেউ মজা করে বলছেন শুরু হয়ে গেছে বাঙালির ‘ক্রিসমাসের পার্বন’।

বেশ কিছুদিন বাদে আবার স্বমহিমায় ফিরে এসেছে কলকাতার বিখ্যাত গ্রেট ইস্ট্রান হোটেলের বেকারি। সেখানেও দেখা গেছে লম্বা লাইন। অনেকেই নিজেদের ছোটবেলার স্মৃতি আরও একবার তাজা করে নিয়ে অপেক্ষা করছেন সেই লাইনে।

শহরের হোটেলগুলোতে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। কলকাতায় অ্যাংলো ইন্ডিয়ানদের পাড়া বলে পরিচিত বিখ্যাত ‘বো ব্যারাক’-এ ঐতিহ্য অনুযায়ী বড়দিন পালন করা হচ্ছে।

বুধবার রাত থেকেই কলকাতার পার্ক স্ট্রিট অঞ্চলে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। ২৫ ডিসেম্বর পার্ক স্ট্রিট অঞ্চলসহ বেশ কিছু রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

তবে আসামের জঙ্গি হামলা, পেশোয়ারের ঘটনা এবং কিছুদিন আগে ঘটে যাওয়া বর্ধমান বিস্ফোরণের ফলে উৎসবের মেজাজে কিছুটা হলেও বেদনা যুক্ত হয়েছে। এসব কারণে উৎসবে বিশেষ সর্তক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০১৩৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa