ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

বিধানসভা নির্বাচনে ৩ জেলায় দ্বিতীয় দফার ভোট গ্রহণ চলছে

রক্তিমদাশ. সিনিয়র করসেপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০১১

কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় দফার ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। কড়া নিরাপত্তার মধ্যে শনিবার সকাল ৭টায় শুরু হওয়া নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।



শনিবার বীরভূম, নদীয়া ও মুর্শিদাবাদের ৫০টি কেন্দ্রে ২৯২ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারিত হবে।

এরমধ্যে বীরভূমে ১১টি কেন্দ্রে ৫৬ জন, নদীয়ায় ১৭টি কেন্দ্রে ৯৪ জন ও মুর্শিদাবাদে ২২টি কেন্দ্রে ১৪২ জন প্রার্থী রয়েছেন। এই তিন জেলায় বুথের সংখ্যা ১১হাজার ৫৩১টি।

এই ৫০টি কেন্দ্রের জন্য ২৮ জন সাধারণ পর্যবেক্ষক, ব্যয় পর্যবেক্ষক ৮ জন ও পুলিশ পর্যবেক্ষক রয়েছেন ১ জন।

এই ৩ জেলার মোট ভোটার ৮৩ লাখ ৪২ হাজার ৫৭১ জন। ভোটে শান্তি বজায় রাখার জন্য ৩ জেলায় মোট ৪৯৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

নদীয়া ও মুর্শিদাবাদের বিস্তীর্ণ অঞ্চল বাংলাদেশ সীমান্ত হওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকেই সীমান্ত সিল করে দেওয়া হয়েছে। সীমান্তে ব্যাপক নজরদারি চালাচ্ছে বিএসএফ।

একইসঙ্গে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বীরভূম জেলার লাগোয়া ঝাড়খ- রাজ্যের সীমান্তও।

ইসি জানিয়েছে, সকাল ৯টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে মুর্শিদাবাদে ১৮ শতাংশ, নদীয়ায় ২০ শতাংশ ও বীরভূমে ২০ শতাংশ। মোট ভোট পড়েছে ১৯ শতাংশ।

সকাল ১০ টায় এই হার গিয়ে দাঁড়ায় যথাক্রমে ২৫, ২৬ ও ২০.৪০ শতাংশ। মোট পড়েছে ২৩ দশমিক ০৮ শতাংশ।

দু’একটি ছোটখাটো ঘটনা ছাড়া ভোট হচ্ছে শান্তিতে। এই ৩টি জেলায় প্রচুর সংখ্যালঘু মুসলিম ভোটার রয়েছেন।

ইসি জানিয়েছেন, পলাশীপাড়ায় সিপিএমের পোলিং এজেন্ট গ্রেপ্তার হয়েছেন। বীরভূম জেলার ইলামবাজারে ১৯ নম্বর বুথ দখলের অভিযোগ এসেছে তৃণমুলের বিরুদ্ধে।

মুর্শিদাবাদের ডোমকলে ভোটারদের বুথে আসতে বাধা দিচ্ছে বলে কংগ্রেস অভিযোগ করেছে। এই জেলারই ৩টি কেন্দ্রে বৈদ্যুতিক ভোট যন্ত্র খারাপ হয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে তা বদলে দেওয়া হয়েছে।

নদীয়া জেলার রানাঘাটের একটি বুথে প্রিসাইডিং অফিসারকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি প্রার্থীর হয়ে প্রচার করছিলেন।

ওই জেলারই কালিগঞ্জে চাপাইগ্রামের ২টি বুথে ভোট বয়কট হয়েছে পঞ্চায়েত কাজ না করার অভিযোগে। এখানে ৪৫০ জন ভোটার রয়েছে।

কালকের ভোটে তারকা প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন মুর্শিদাবাদের ডোমকল কেন্দ্রে রাজ্যের মন্ত্রী আনিসুর রহমান, বীরভূমের নলহাটি কেন্দ্রে কংগ্রেস প্রার্থী কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখার্জির ছেলে অভিজিৎ মুখার্জি, এই জেলারই সাঁইথিয়া কেন্দ্রে তৃণমূলের বিশিষ্ট লোকসঙ্গীত শিল্পী পরীক্ষিৎ বালা ও নদীয়ার কৃষ্ণনগরে তৃণমূল প্রার্থী রাজ্যের সাবেক পুলিশ কর্তা অবনী জোয়ারদার।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa