ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

কলকাতার আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম বদলের প্রতিবাদে পরীক্ষা বয়কট

রক্তিম দাশ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৯ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০১১
কলকাতার আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম বদলের প্রতিবাদে পরীক্ষা বয়কট

কলকাতা: রাজ্যের সংখ্যালঘু মুসলিম ছাত্রদের জন্য তৈরি আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের সঙ্গে ‘মাদ্রাসা’ শব্দটি যুক্ত করার সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে পরীক্ষা বয়কটের ডাক দিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা।

কলকাতার ২২৯ বছরের ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান ‘ক্যালকাটা মাদ্রাসা’ বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করে সাবেক বামফ্রন্ট সরকার এর নাম রেখেছিল আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়।



এর বিরুদ্ধে বাম আমলে ব্যাপক আন্দোলন করে মাদ্রাসা ছাত্র ইউনিয়ন নামক একটি সংগঠন।

তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি তখন তাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ক্ষমতায় এলে তিনি এই নাম পরিবর্তন করে দেবেন।

প্রতিশ্রুতি মোতাবেক গত বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ‘মাদ্রাসা’ শব্দটি যোগ করার কথা ঘোষণা করেন মহাকরণে।

এই ঘোষণায় মাদ্রাসা ছাত্র ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ খুশি হলেও নাখোশ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা। এর প্রতিবাদে গত শুক্রবার দুপুরে তারা ধর্মতলায় পথ অবরোধ করেন।

সোমবারও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, রেজিস্ট্রার ও পরীক্ষা নিয়ামককে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং, স্নাকোত্তর বিজ্ঞান ও কলাবিভাগের শিক্ষার্থীরা মঙ্গলবার থেকে বয়কট শুরু করেছেন।

আলিয়া মাদ্রাসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল কালাম আজাদ কলকাতায় বাংলানিউজকে বলেন, ‘আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নামের সঙ্গে মাদ্রাসা শব্দটি যুক্ত হলে সেটা হাস্যকর হবে। ’

তিনি জানান, প্রচলিত ধারণা অনুসারে মাদ্রাসায় ধর্ম বিষয় পড়াশোনা হয়। এর ফলে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি মাদ্রাসা নামটাও থাকলে ইঞ্জিনিয়ারিং বা স্নাতকোত্তর পাশ করা ছাত্রছাত্রীদের চাকরি পেতে অসুবিধা হবে।

তিনি বলেন, আমাদের বক্তব্য জানানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম। কিন্তু দেখা হয়নি। ’

রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত না বদলালে পরীক্ষা বয়কট চলবে বলেও জানান তিনি।

রাজ্যের মুসলিম শিক্ষাবিদদের বক্তব্য ছিল, ক্যালকাটা মাদ্রাসা কলেজটি রেখে দিয়ে আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করা হোক। কিন্তু তা হয়নি।

এর কারণে বলতে গিয়ে রাজ্যের সাবেক মাদ্রাসা শিক্ষামন্ত্রী ড. আবদুস সাত্তার বলেন, ‘রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে কলেজকে আলাদা রেখে বিশ্ববিদ্যালয় গড়া প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেই সময় একদল ছাত্র-ছাত্রী এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করেন। এর ফলে মুসলিম শিক্ষাবিদ ও সাবেক রাজ্যপাল ড. এআর কিদোয়াইয়ের নেতৃত্ব গঠিত মাদ্রাসা এডুকেশান কমিটির সুপারিশে ক্যালকাটা কলেজকেই সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয় করা হয়। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩০ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa