ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

মরক্কো থেকে ৮ লাখ মে.টন সার কেনার অনুমোদন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১
মরক্কো থেকে ৮ লাখ মে.টন সার কেনার অনুমোদন

ঢাকা: বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক মরক্কো থেকে ৮ লাখ মেট্রিক টন ডিএপি ও টিএসপি সার ক্রয়ের জন্য কৃষি মন্ত্রণালয়ের দুটি পৃথক প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে মোট ব্যয় হবে ৩ হাজার ৪৯৩ কোটি ৯৭ লাখ ৪১ হাজার টাকা।

বৈঠকে মোট ৭ হাজার ২৬০ কোটি ৬০ লাখ ২৮ হাজার টাকা ব্যয়ে ৮টি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) এক ভার্চ্যুয়াল সভায় ক্রয় প্রস্তাবগুলো অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সভায় কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেন।

বৈঠক শেষে অতিরিক্ত সচিব ড. সালেহ সাংবাদিকদের জানান, কৃষি মন্ত্রণালয়ের আওতায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক ওসিপি, মরক্কো থেকে ৪ লাখ ৪০ হাজার মেট্রিক টন ডিএপি সার আমদানির একটি প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এ জন্য ব্যয় হবে দুই হাজার ১৫৫ কোটি ৭৭ লাখ ৬১ হাজার ৫০০ টাকা।

এছাড়াও কৃষি মন্ত্রণালয়ের অপর একটি প্রস্তাবে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক ওসিপি, মরক্কো থেকে ৩ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন টিএসপি সার আমদানির প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এ জন্য ব্যয় হবে এক হাজার ৩৩৭ কোটি ১৯ লাখ ৭৯ হাজার ৫০০ টাকা।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক (১) মেসার্স জেনট্রেড এফজেডই, ইউএই এবং (২) মেসার্স আরিস ফার্টিলাইজারস গ্রুপ পিটিই লি., সিঙ্গাপুর থেকে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক এসিড আমদানির একটি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এতে মোট ব্যয় হবে ১০৬ কোটি ২৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৫৩ টাকা।

এর আগে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ৩টি প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। অনুমোদিত প্রস্তাবগুলো হলো— পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক ‘মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলায় আড়িয়াল খাঁ নদীতীর সংরক্ষণ ও ড্রেজিং’ প্রকল্পের (নদীতীর সংরক্ষণ কাজ ৬.৩ কি.মি. এবং নদী ড্রেজিং ১৫.৫ কি.মি.) কাজসমূহ রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে পিপিএ-২০০৬ এর ধারা ৬৮(১) ও পিপিআর-২০০৮ এর বিধি ৭৬(২) অনুসারে জনস্বার্থে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে (DPM) বাস্তবায়নের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

খাদ্য মন্ত্রণালয় আওতায় খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে পিপিএ ২০০৬ এর ৬৮(১) ধারা এবং পিপিআর ২০০৮ এর বিধি ৭৬(২) অনুযায়ী সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে (DPM) ১ লাখ মেট্রিক টন গম রাশিয়ান ফেডারেশন থেকে ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া খাদ্য মন্ত্রণালয় আওতায় খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে পিপিএ ২০০৬ এর ৬৮(১) ধারা এবং পিপিআর ২০০৮ এর বিধি ৭৬(২) অনুযায়ী সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে (DPM) ৫০ হাজার মেট্রিক টন গম ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২১
জিসিজি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa