ঢাকা, রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

বুড়িমারী স্থলবন্দরে বাণিজ্য বন্ধ ১০ দিন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২
বুড়িমারী স্থলবন্দরে বাণিজ্য বন্ধ ১০ দিন

লালমনিরহাট: শারদীয় দুর্গাপূজা, ঈদে মিলাদুন্নবী ও সাপ্তাহিক ছুটি মিলে টানা ১০ দিন বন্ধ থাকছে লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দরের সব ধরনের পণ্য আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।

জানা গেছে, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা এবং মুসলিমদের ধর্মীয় উৎসব ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) থেকে রোববার (৯ অক্টোবর) পর্যন্ত টানা ১০ দিন ছুটি থাকবে।

ফলে এ কদিন লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দরের সব ধরনের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকেবে।  

দুর্গাপূজা ও ঈদে মিলাদুন্নবীর ছুটি নিয়ে ভারতের চ্যাংরাবান্ধা ও বাংলাদেশের বুড়িমারী স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, আমদানি-রপ্তানিকারক অ্যাসোসিয়েশন, ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশন ও ভুটান এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশনসহ সব ব্যবসায়ী সংগঠন বৈঠক করেন। বৈঠকের সিদ্ধান্ত মোতাবেক দুর্গাপূজা উপলক্ষে ১ অক্টোবর থেকে ৬ অক্টোবর এবং ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে ৮ ও ৯ অক্টোবর স্থলবন্দরের সব ধরনের পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকবে। আগামী সোমবার (১০ অক্টোবর) বন্দরের যাবতীয় কার্যক্রম চালু হবে।  

বৈঠকে এ ছুটি নির্ধারণ করে পরববর্তীতে উভয় দেশের স্থলবন্দরের সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানে দুর্গাপূজা ও ঈদে মিলাদুন্নবীর ছুটি সংক্রান্ত পৃথক চিঠি বিনিময় করা হয়েছে।

বুড়িমারী কাস্টমস্ ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরওয়ার্ডিং এজেন্ট (সিঅ্যান্ডএফ) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ছায়েদুজ্জামান ছায়েদ বলেন, দুর্গাপূজা ও ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে ব্যবসায়ীদের সিন্ধান্ত এবং ইস্যুকৃত চিঠি অনুযায়ী সাপ্তাহিক ছুটিসহ ১০দিন বন্ধ থাকবে বুড়িমারী ও চ্যাংরাবান্ধা স্থলবন্দর। তবে আগামী সোমবার (১০ অক্টোবর) থেকে যথানিয়মে ফের আমদানি-রপ্তানিসহ সব কার্যক্রম চালু হবে।

বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশের কর্মকর্তা উপ পরিদর্শক (এসআই) কবির হোসেন বলেন, বুড়িমারী স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও অভিবাসন চৌকি হয়ে পাসপোর্ট ও ভিসাধারী যাত্রীদের যাতায়াত স্বাভাবিক থাকবে।

বুড়িমারী স্থল শুল্ক স্টেশন কাস্টমস্ সহকারী কমিশনার (এসি) বিল্লাল হোসেন বলেন, সিঅ্যান্ডএফ ও আমদানি-রপ্তানিকারকগণ এবং ব্যবসায়ী ও পরিবহনে নিযুক্ত ব্যক্তিরা কাজ বন্ধ রাখলে এমনিতেই স্থল শুল্ক স্টেশন ও বন্দরের কাজ থাকে না। তবে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী আমাদের কাস্টমস্ কার্যালয় খোলা থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa