ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

৩৩ বিসিএস আবেদনকারীরা শেষদিনে ভোগান্তির শিকার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ৭, ২০১২
৩৩ বিসিএস আবেদনকারীরা শেষদিনে ভোগান্তির শিকার

ঢাকা: ৩৩তম বিসিএসের আবেদনকারীরা অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার শেষদিনে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। নির্ধারিত সময় অনুযায়ী শনিবার রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে আবেদনের সময় শেষ হচ্ছে।



পরীক্ষার্থীদের সশরীরে পিএসসির কার্যালয়ে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার ভোগান্তি কমাতে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনের পদ্ধতি চালু করে পিএসসি। তবে তাতেও ভোগান্তি থেকে রেহাই মিললো না।

শেষদিনে সকাল থেকেই আবেদনকারীরা নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ঢুকতে না পারাসহ টেলিটক মোবাইল ফোনে রেজিস্ট্রেশনের ফি জমা দিতে পারছেন না বলে অভিযোগ উঠতে থাকে।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষাজীবন শেষ করা চট্টগ্রামের সজীব বিশ্বাস শনিবার বেলা তিনটার দিকে টেলিফোনে বাংলানিউজকে বলেন, ‘সকালের পর থেকেই চেষ্টা করছি, কিন্তু টেলিটকের মোবাইলে রেজিস্ট্রেশনের ৫০০ টাকা জমা দেওয়ার এসএমএস আসছে না। ’

একই ধরনের অভিযোগ আরো কয়েকজনের কাছে থেকেও পাওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনের জন্য একমাত্র টেলিটকের সঙ্গেই চুক্তি করে পিএসসি।

অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনের পদ্ধতি চালু করার কয়েকদিন আগেই অবশ্য পিএসসি এ আশঙ্কার কথা জানিয়ে দেয়। তাদের আশঙ্কাই শেষ পর্যন্ত সত্য হল।

পিএসসির সার্ভারের পরিসর ছোট হওয়ায় এ ধরনের চাপ হতেই পারে বলে পিএসপির এক কর্মকর্তা বাংলানিউজকে জানান।

তিনি বলেন, ‘এ আশঙ্কা থেকেই পিএসসি নিজস্ব ওয়েবসাইটের বাইরে টেলিটকের ঠিকানায় (http://bpsc.teletalk.com.bd) অনলাইন নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা হয়। ’

পিএসসির ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘শেষ দিনে আবেদনপত্র পূরণে সমস্যা হওয়ার বিষয়টি আমাদের গোচরে এসেছে। এ জন্য একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা যায় কি না তা নীতি নির্ধারকরা ভেবে দেখছেন। ’

তবে সময় আর বাড়ানোর সম্ভাবনা খুব কম বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এদিকে পিএসপির জনসংযোগ কর্মকর্তা মীর মোশাররফ হোসেন শনিবার বিকেলে বাংলানিউজকে বলেন, ‘কেউ যদি রেজিস্ট্রেশন ফরম পূরণ করতে নাও পারেন সমস্যা তেমন হবে না, পরে নির্ধারিত পাসওয়ার্ড দিয়ে পূর্ণ রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। কিন্তু, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টেলিটকের মোবাইলে টাকা জমা দেওয়ার কনফার্মেশন এসএমএস পেতে হবে। ’

পিএসসির আগের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, নির্ধারিত সময় ৭ এপ্রিল রাত ১১টা ৫৯ মিনিটের মধ্যে মধ্যে ফরম পূরণ এবং ফি জমা না দিলে কোনো আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না।

৮ মার্চ থেকে ৩৩তম বিসিএসের আবেদনপত্র পূরণ ও ফি জমা দেওয়ার সময় শুরু হয়।

৪ হাজার ২০৬টি প্রথম শ্রেণীর ক্যাডার শূন্য পদে ৩৩তম বিসিএস থেকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এছাড়াও বাছাইকৃতদের মধ্য থেকে প্রথম শ্রেণীর নন-ক্যাডার পদেও সীমিত সংখ্যক চূড়ান্ত উত্তীর্ণ সুযোগ পাবেন।

এবার বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে ৩০০, পুলিশ ৮৯, কর ৬৯, পররাষ্ট্র ১৬ জনসহ সাধারণ ক্যাডারে ৫৮২ জন নিয়োগ দেওয়া হবে।

প্রফেশনাল/কারিগরি ক্যাডারে ২ হাজার ৫৭২ জন চিকিৎসকসহ ২ হাজার ৯০৫ জনকে নিয়োগ দেবে সরকার। এছাড়া বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) ক্যাডারে শিক্ষক হিসেবে ৬০৭ জন ও শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজগুলোর জন্য ১১২ জনকে নিয়োগ পাবেন।

ধারণা করা হচ্ছে, প্রায় এক লাখের বেশি আবেদনকারী ৩৩তম বিসিএসের জন্য আবেদন করবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৭, ২০১২  

একেআর/ সম্পাদনা: জাকারিয়া মন্ডল, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa