ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

শিক্ষা

রমজানে খুবিতে অফিস সকাল ৯টা-সাড়ে ৩টা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৩ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২৩
রমজানে খুবিতে অফিস সকাল ৯টা-সাড়ে ৩টা

খুলনা: খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) একাডেমিক ও প্রশাসনিক প্রধানদের সাথে রোববার (১৯ মার্চ) মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এদিন বিকেল ৩টায় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।



সভায় পবিত্র রমজান মাসে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসের সময়সূচি সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়। এর মধ্যে দুপুর ১টা থেকে ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত যোহরের নামাজের বিরতি।  

সভায় আগামী জুলাই মাস থেকে পিএইচডি ভর্তি কার্যক্রম শুরু করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।  

এছাড়া সভায় শিক্ষকদের গবেষণা প্রণোদনা, শিক্ষার্থীদের গবেষণা অনুদান, রিসার্চ ইনডোমেন্ট ফান্ড, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবনের নিরাপত্তা বৃদ্ধি, বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ, ডি-নথি কার্যক্রমসহ একাডেমিক ও প্রশাসনিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়।

সভায় খুবির উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন বলেন, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিকতায় খুবি এগিয়ে যাচ্ছে। এবছর একাডেমিক ক্ষেত্রে বিশেষ করে বিভিন্ন স্কুল ও ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক/জাতীয় সম্মেলন, সেমিনার ও সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত হয়েছে। এটা অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক।  

তিনি বলেন, ইন্ডাস্ট্রি-ইউনিভার্সিটি কোলাবরেশন বৃদ্ধিতে এ বছর স্বাক্ষরিত এমওইউয়ের সংখ্যা আমাদের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি হয়েছে। এজন্য তিনি সংশ্লিষ্ট স্কুল ও ডিসিপ্লিনের শিক্ষকদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।  

তিনি আরও বলেন, খুবির ভর্তিকৃত নবীন শিক্ষার্থীরা যাতে র‌্যাগিংয়ের শিকার না হয়, এজন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পাশাপাশি ডিসিপ্লিনগুলোকে আরও বেশি দায়িত্ব নিতে হবে। সবাইকে সচেতন করতে হবে। শিক্ষার্থীদের মাদক থেকে দূরে রাখতে হবে। এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

সভায় উপাচার্য আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে গৃহীত অগ্রিমের সমন্বয় প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি নির্দেশনা দেন।  

সভায় পদ্মাসেতু এক্সপ্রেসওয়েতে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাবেক শিক্ষার্থী রয়েছে বলে উল্লেখ করে উপাচার্য গভীর শোক প্রকাশ এবং নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করেন। একইসঙ্গে পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, ট্রেজারার প্রফেসর অমিত রায় চৌধুরী, বিভিন্ন স্কুলের ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধান, বিভাগীয় ও শাখা প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।  

সভা সঞ্চালনা ও সূচনা বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৬ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২৩
এমআরএম/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।