ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ মে ২০২২, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

যুক্তরাষ্ট্রের কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে রাবির চুক্তি

রাবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২২
যুক্তরাষ্ট্রের কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে রাবির চুক্তি

রাবি: উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতার লক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রের কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স রুমে এ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়।

রাবির পক্ষে উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যাচারাল সায়েন্স বিভাগের সেন্টার ফর ন্যানোটেকনোলজির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক প্রফেসর জামাল উদ্দিন সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। এরপর তারা স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক বিনিময় করেন।  

এসময় রাবির উপ-উপাচার্য প্রফেসর মো. সুলতান-উল-ইসলাম, রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. আবদুস সালাম, প্রকৌশল অনুষদের অধিকর্তা প্রফেসর আবু জাফর মো. তৌহিদুল ইসলাম, ম্যাটেরিয়ালস সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতি প্রফেসর জিএম শফিউর রহমান ও প্রফেসর আনোয়ারুল কবীর ভূঁইয়া, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক প্রফেসর প্রদীপ কুমার পাণ্ডে উপ-রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) এ এইচ এম আসলাম হোসেনসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত শিক্ষকরা বলেন, এ শতাব্দীতে বায়োটেকনোলজি ও ন্যানোটেকনোলজি মানুষের জীবনের নানা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। স্বাস্থ্য, পরিবেশ, কৃষি, শিল্প ও বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় বায়োটেকনোলজি ও ন্যানোটেকনোলজির অনেক ধরনের ব্যবহার রয়েছে। প্রসাধনী থেকে শুরু করে সমুদ্র অর্থনীতিতেও ন্যানোটেকনোলজির ছোঁয়া লেগেছে।  

রাবির সঙ্গে কপিন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সমঝোতা হচ্ছে, তার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় দু’টির শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও গবেষকরা সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে জ্ঞান বিনিময় ছাড়াও উদ্ভাবনী গবেষণা করতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।

পরে ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে এক সেমিনার 'Nanotechnology: Small things Matter and Have Power to Transform Energy, Health and the Environment' শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রফেসর জামাল উদ্দিন।  

প্রকৌশল অনুষদের অধিকর্তা প্রফেসর আবু জাফর মো. তৌহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সেমিনারে ম্যাটেরিয়ালস সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর আনোয়ারুল কবীর ভূঁইয়া স্বাগত বক্তব্য দেন।

এছাড়া ফলিত রসায়ন ও রসায়ন প্রকৌশল বিভাগের সভাপতি প্রফেসর মো. ইব্রাহীম হোসন মণ্ডল, ম্যাটেরিয়ালস সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতি প্রফেসর জি এম শফিউর রহমান ও জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের প্রফেসর মো. আবু রেজা আলোচনায় অংশ নেন।  

সেমিনারে প্রকৌশল অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোর প্রায় ৫০ জন শিক্ষক অংশ নেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২২
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa