ঢাকা, শনিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

শিক্ষা

শিক্ষামন্ত্রীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সের মেয়াদ হ্রাসের বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০২২
শিক্ষামন্ত্রীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সের মেয়াদ হ্রাসের বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি

ঢাকা: ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সের মেয়াদ হ্রাসের বক্তব্য প্রত্যাহার ও মূল সংকট নিরসনে শিক্ষামন্ত্রীকে মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র-শিক্ষক পেশাজীবী সংগ্রাম পরিষদ।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) আয়োজিত ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা-ইন ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সের মেয়াদ ৩ বছরে হ্রাসকরণে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ ও শিক্ষা ব্যবস্থায় বিরাজমান সমস্যাদি নিরসনের যৌক্তিকতা তুলে ধরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন সংগঠনের সদস্য সচিব মির্জা এটিএম গোলাম মোস্তফা।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ২০০০ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবর্তিত ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সের মেয়াদ ৩ বছরে নিয়ে আসার বক্তব্য অবিলম্বে প্রত্যাহার করে এ শিক্ষাব্যবস্থার বিরাজমান সংকট নিরসনে মনোযোগী হওয়ার জন্য শিক্ষামন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবী সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ।  

তিনি আরও বলেন, কোন গোষ্ঠীর স্বার্থ সংরক্ষণে যখন বৈশ্বিক কারণে সৃষ্ট নানাবিদ সংকট নিরসনে প্রধানমন্ত্রী নিরলসভাবে কাজ করছেন, ঠিক সেই মুহূর্তে শিক্ষামন্ত্রী এ ধরনের বক্তব্য দিচ্ছেন, সেটি নানান প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে।  

সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ বলেন, বৈশ্বিক কর্মবাজারের ধরন বিবেচনায় যখন ভারত ও পাকিস্তানে এ কোর্সের মেয়াদ ৪ বছরে উন্নীত করা হচ্ছে, বিশ্বের অনেক দেশে কোর্সের মেয়াদ ৪ বছর বা তারও বেশি, তখন কি কারণে অভিভাবকদের অর্থ সাশ্রয়ের খোঁড়া যুক্তি দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশে এই কোর্সের মেয়াদ ৪ থেকে ৩ বছরে নিয়ে আসার অভিপ্রায় ব্যক্ত করা অযৌক্তিক ও হাস্যকর।  

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী কারিগরি শিক্ষার সম্প্রসারণ, পলিটেকনিক শিক্ষাব্যবস্থার তীব্র শিক্ষক স্বল্পতা নিরসন, ল্যাব ওয়ার্কসপ, ক্লাসরুম সংকট নিরসন সহ জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর অভীষ্ট লক্ষ্য বাস্তবায়নে মনোযোগ দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়। মূল সমস্যা পাশ কাটিয়ে কারো প্ররোচনায় এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করলে তার পরিণতি ভয়াবহ হবে বলেও সংবাদ সম্মেলন থেকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়।  

নেতৃবৃন্দ বলেন, শান্তিপূর্ণ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাঙ্গন ও প্রকৌশল অঙ্গনকে পরিকল্পিতভাবে অশান্ত করার অপপ্রয়াস কোনভাবে মেনে নেওয়া হবে না। বিশ্ব প্রেক্ষাপটে নানা প্রতিকূল পরিস্থিতিতে যখন প্রধানমন্ত্রী জনজীবনে স্বস্তি আনার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন এবং মানবসম্পদ উন্নয়নে কারিগরি শিক্ষাকে শিক্ষার মূলস্রোতধারায় নিয়ে আসার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছেন, ঠিক সেই মুহূর্তে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে ঠেলে দেওয়ার পরিণতি কোনভাবে দেশ ও জাতির জন্য মঙ্গল বয়ে আনবে না। এটিকে সরকারের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র উল্লেখ করে বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণে নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে এ ধরনের পদক্ষেপ বন্ধের নির্দেশনা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য অবিলম্বে প্রত্যাহার ও এ শিক্ষাব্যবস্থায় বিরাজমান সংকট নিরসনসহ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবীদের ৪ দফা মেনে নেওয়ার দাবিতে ১৭ থেকে ২৫ আগস্ট পর্যন্ত দেশব্যাপী আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।  

ঘোষিত কর্মসূচির মধ্যে সকল জেলায় আইডিইবি, সংগ্রাম পরিষদ ও বাংলাদেশ কারিগরি ছাত্র পরিষদের যৌথ উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করে মেয়াদ হ্রাসের ভ্রান্ত ধারণা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য শিক্ষামন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানানো এবং কেন্দ্রীয় সংগ্রাম পরিষদ, কেন্দ্রীয় সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন ও কেন্দ্রীয় বাকাছাপের উদ্যোগে শিক্ষামন্ত্রী বরাবরে বক্তব্য প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়ে চিঠি পাঠানো হবে।  

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান, কেন্দ্রীয় সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক মো. ফজলুর রহমান খান, আইডিইবির জনসংযোগ ও প্রচার সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম, প্রাইভেট সেক্টর ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. নাজিমুদ্দিন পাটোয়ারী, বাকাছাপ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. মেহেদি হাসান, মো. সাইফুল আলম মোল্লা প্রমুখ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৭ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০২২
এসএমএকে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa