ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন ও ইসি

কক্ষ থেকে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে বের করে নৌকায় সিল মারার অভিযোগ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০২১
কক্ষ থেকে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে বের করে নৌকায় সিল মারার অভিযোগ

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের ভুঞাপুর পৌরসভা নির্বাচনে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সংঘর্ষ চলাকালে কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কক্ষসহ আরো তিনটি কক্ষ বন্ধ করে একযোগে কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসনের পানির বোতল ও নৌকা প্রতীকে সিল মারার অভিযোগ উঠেছে।  

শনিবার (৩০ জানুয়ারি) ভুঞাপুর পৌরসভার কুতুবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‌্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

 

স্থানীয়রা জানান, সকাল থেকে সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ হচ্ছিল। বেলা ১১টার দিকে জাল ভোট দেওয়া নিয়ে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কক্ষসহ কেন্দ্রের আরো তিন কক্ষে নৌকা প্রতীক ও কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেনের পানির বোতল প্রতীকে জাল ভোট দিতে থাকে। পরে জাল ভোট দেওয়া শেষ হলে তারা চলে যায়।  

সরেজমিনে কুতুবপুর কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, সংঘর্ষ চলাকালীন ওই কেন্দ্রে প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কক্ষ ভিতর থেকে আটকানো। এছাড়া কেন্দ্রের আরো তিনটি কক্ষও বন্ধ। ফলে সেখানকার কক্ষগুলোতে মানুষকে জাল ভোট দিতে দেখা গেছে। এসময় আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেন জালভোট দেওয়ার নেতৃত্ব দেন। এসময় তিনটি ব‌্যালট বইয়ে নৌকা প্রতীকে সিল মারা অবস্থায় দেখা যায়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে একটি কক্ষ থেকে সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ব‌্যালট বোঝাই একটি বাক্স প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কক্ষে নিয়ে আসেন।  

পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কুতুবপুর কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা শাহীনুর ইসলাম বলেন, সংঘর্ষের সময় ভোটগ্রহণ স্থগিত ছিল। কক্ষ আটকিয়ে জাল ভোট দেওয়ার কথা অস্বীকার করেন। কেন্দ্রে সংঘর্ষ হয়েছিল। এতে কিছু সময়ের জন‌্য ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিল। তবে জাল ভোট দেওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বাংলানিউজকে জানান, তার সমর্থকদের মধ্যে চারজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। তাদের টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরেক কাউন্সিলর প্রার্থী জাহিদুল ইসলামের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২০, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa