ঢাকা, সোমবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৮, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ সফর ১৪৪৩

নির্বাচন

সৈয়দপুরের প্রকৃত উন্নয়ন চাইলে নৌকায় ভোট দিন: নানক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১
সৈয়দপুরের প্রকৃত উন্নয়ন চাইলে নৌকায় ভোট দিন: নানক বক্তব্য দিচ্ছেন জাহাঙ্গীর কবির নানক। ছবি: বাংলানিউজ

নীলফামারী: আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশব্যাপী যে উন্নয়নের জোয়ার চলছে তা থেকে সৈয়দপুর বাদ নেই। কিন্তু একটি পৌরসভায় উন্নয়ন করতে হলে তা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমেই করতে হয়।

সেটা করতে হলে নৌকা মার্কার প্রার্থীকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করতে হবে। নীলফামারীর সৈয়দপুরের প্রকৃত উন্নয়ন চাইলে মেয়র পদে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়া ছাড়া কোনো বিকল্প নেই।  

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সৈয়দপুর শহরের অফিসার্স ক্লাব প্রাঙ্গণে নৌকা মার্কার সমর্থনে উর্দূভাষী ক্যাম্পবাসীদের নিয়ে আয়োজিত পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।  

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম, নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আইনজীবী সভাপতি মমতাজুল হক, সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মহসিনুল হক মহসিন, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সানজিদা বেগম লাকীসহ স্থানীয় নেতারা।

নানক বলেন, সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় সৈয়দপুর বিমানবন্দর আন্তর্জাতিকমানে উন্নীত করা হচ্ছে। আর্মি ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শিক্ষানগরী সৈয়দপুরের মান আরও বৃদ্ধি করা হয়েছে। সৈয়দপুর কারিগরী মহাবিদ্যালয়কে বিজ্ঞান কলেজে রূপান্তর করাসহ পৃথক একটি টেকনিক্যাল কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। ইতোপূর্বে শেখ হাসিনাই উত্তরা ইপিজেড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে মঙ্গাপীড়িত নীলফামারীকে আমূল বদলে দিয়েছে। একইভাবে অর্থনৈতিক জোন তৈরির মাধ্যমে ব্যাপক কর্মসংস্থান ও আর্থিক বিপ্লব ঘটানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।  

তিনি বলেন, এই ধারাবাহিকতায় নীলফামারী ও সৈয়দপুরে আরও নানা ধরনের উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হবে। কিন্তু পৌর এলাকায় কোনো কাজ করতে গেলে তা পৌর পরিষদের মাধ্যমেই করতে হবে। তাই এখানে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নেতা থাকলে তা অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে করা সম্ভব হবে। দীর্ঘ ৩০ বছর বিএনপির লোক মেয়র থাকায় উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছে সৈয়দপুর। তা থেকে উত্তরণ ঘটাতে আপনারা যদি উদ্যোগী হন এবং নৌকা মার্কায় ভোট দেন তাহলে সার্বিক উন্নয়নের চিত্র পাল্টে ফেলা হবে।  

নানক বলেন, বিএনপির চরিত্রই হলো মিথ্যাচার করা। তাই সৈয়দপুরে বিএনপি তাদের নেতাকে আটক ও নির্বাচনী কাজে বাধার দেওয়ার মিথ্যা অভিযোগ এনেছে। মূলত তারা পরাজয় নিশ্চিত হয়ে নিজেদের লজ্জা ঢাকতে উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে চাপানোর চেষ্টা করছে।  

এসময় ক্যাম্পবাসীদের পক্ষ্যে বক্তব্য দেন- উর্দূভাষী নেতা আশরাফুল হক বাবু, বাঁশবাড়ী ক্যাম্পের সভাপতি আকবরই আজম ও খুলনা থেকে আগত শাহিন আলম।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa