ঢাকা, বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন

ইউপি নির্বাচন: মাস্ক নেই অধিকাংশ ভোটারের মুখে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২২
ইউপি নির্বাচন: মাস্ক নেই অধিকাংশ ভোটারের মুখে

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ষষ্ঠ ধাপে পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ চলছে। তবে ভোট দিতে আসা অধিকাংশ ভোটারের মুখে নেই মাস্ক।

শুধু তাই নয়, গা ঘেঁষেও ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন।

এছাড়া পোলিং ও আনসার সদস্যের মধ্যে অনেককেই মাস্ক পরতে দেখা যায়নি। দেখা যায়নি স্বাস্থ্যবিধি নিয়ন্ত্রণে কাজ করতে প্রশাসনের কোন উদ্যোগ।

সোমবার (৩১ জানুয়ারি) বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

মির্জাপুর ইউনিয়নের মির্জাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা হিরা মিয়া নামের এক আনসার সদস্য বলেন, প্রায় ভোটারের মুখেই মাস্ক নেই। সবাই গা ঘেঁষে লাইনে দাঁড়িয়ে আছে।

এ কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা প্রিসাইডিং অফিসার লুৎফর রহমান বলেন, মাস্ক ও স্বাস্থ্যবিধির বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীরা ভোটারদের মিটিংয়ের মাধ্যমে প্রার্থীদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আমরা তারপরও ভোটারদের মাস্ক পরতে বলতেছি। জায়গা কম থাকায় দূরত্ব বজায় রাখতে সম্ভব হচ্ছে না।

আলমনগর ইউনিয়নের মাদারজানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আসলাম তালুকদার বলেন, অনেকেই মাস্ক নিয়ে আসেনি। তবে আমরা ভোটারদের মাস্ক নিয়ে আসতে বলা হয়েছিলো।

এ এলাকার ভোটার হামেলা বেগম বলেন, পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে দ্রুত বের হয়েছি। এজন্য মাস্ক আনতে মনে নেই। এখানে জায়গা কম। গা ঘেঁষে দাঁড়িয়েছি, কিছুই করার নেই।

খলিলুর রহমান নামের এক ভোটার বলেন, মাস্ক আনতে মনে নেই। অনেকেই মাস্ক পরেনি। আমাদের কোন সমস্যা হয় না। আর কেন্দ্রের কোন কর্মকর্তাই আমাদের মাস্ক আনতে বলেনি।

এদিকে, প্রচণ্ড শীতকে উপেক্ষা করে সাধারণ ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে লাইনে দাঁড়িয়েছেন। সকালেই ভোটারদের দীর্ঘ লাইন রয়েছে। তবে পুরুষ ভোটারের চেয়ে নারী ভোটারের উপস্থিতি বেশি দেখা যায়।

জানা যায়, উপজেলার মির্জাপুর, আলমনগর, হাদিরা, নগদাশিমলা এবং ধোপাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ পাঁচটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আর সাধারণ সদস্য পদে ১৫৫ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৫১ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। পাঁচটি ইউনিয়নে ৫০টি কেন্দ্রে মোট ১ লাখ

১৭ হাজার ৭৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ৫৮ হাজার ৮৯২ আর নারী ভোটার রয়েছে ৫৮ হাজার ১৮১ জন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এএইচএম কামরুল হাসান বলেন, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে। এখনও কোথাও ঝামেলার সৃষ্টি হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২২
এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa