ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন

নাজিরপুরে দুই প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪১ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২২
নাজিরপুরে দুই প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

পিরোজপুর: পিরোজপুরের নাজিরপুরে দুই ইউনিয়নের নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের পাল্টপাল্টি অভিযোগ পাওয়া গেছে।  

জানা গেছে, উপজেলার দেউলবাড়ি দোবরা ও কলারদোয়ানিয়া ওই দুই ইউনিয়নে আগামী ১৫ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এর মধ্যে দেউলবাড়ি দোবরা ইউনিয়নে তিনজন চেয়ারম্যান, ৩১ জন সাধারণ মেম্বার, ১০ জন সংরক্ষিত নারী মেম্বার প্রার্থী এবং কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের আটজন চেয়ারম্যান, ৩২ সাধারণ মেম্বার ও ৯ জন সংরক্ষিত নারী মেম্বার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

উপজেলার দেউলবাড়ি দোবরা ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মাস্টার মো. ওলিউল্লাহ জানান, তার প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্র্র্রতীকের জিএম মিজানুর রহমান ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী চশমা প্রতীকের এফএম রফিকুল আলম (বাবুল) অধিক রাত পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচারণাসহ তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে মিথ্যাচার করছেন।  

তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করে তারা জানান, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মাস্টার মো. ওয়ালিউল্লাহ নিয়মিত নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন।  

ওই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী এফএম রফিকুল আলম (বাবুল) জানান, একজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর তিনটি নির্বাচনী প্রচারণার অফিস থাকার অনুমতি থাকলেও নৌকার প্রার্থী মাস্টার মো. ওয়ালিউল্লাহ আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নয়টি অফিস করেছেন।

এছাড়া ওই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো. আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনসহ প্রার্থীদের কর্মীদের বাড়িতে গিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা।

উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী ফুটবল মার্কার মো. রুহুল আমীন জানান, তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী টিউবওয়েল মার্কার মো. মনিরুজ্জামান অধিক রাত পর্যন্ত প্রচারণাসহ ভোটারদের হুমকি দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মেম্বার প্রার্থী মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ওই প্রার্থী তার নিশ্চিত পরাজয় ভেবে আমার বিরুদ্ধে এমন মিথ্যাচার
করছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ছিদ্দিকুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, ওই দুই ইউনিয়নের প্রার্থীরা যাতে কেউ নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন না করেন সেজন্য নিয়মিত টহল টিম রয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইতোমধ্যে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়াসহ প্রক্রিয়া চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৮ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa