ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৫ রজব ১৪৪৪

বিনোদন

গান চুরি করে নিজের নামে চালিয়ে পিছু হটলেন নোবেল

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২২, ২০১৯
গান চুরি করে নিজের নামে চালিয়ে পিছু হটলেন নোবেল

এবার ‘সারেগামাপা’খ্যাত তারকা নোবেল তার সাবেক ব্যান্ডের গান চুরি করে নিজের নামে চালিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ব্যান্ডদল ‘অ্যাবাউট ডার্ক’র অভিযোগের মুখে পিছু হটেছেন তিনি। ফেসবুক ও ইউটিউবে তার শেয়ার করা ‘দেশ’ শিরোনামের গানটি সরিয়ে নিয়েছেন তিনি।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ ও ইউটিউবে ‘দেশ’ শিরোনামের একটি গান প্রকাশ করেন নোবেল। যেখানে গানটির কথা ও সুর নিজের বলে উল্লেখ করেন তিনি।

 

নোবেলের সাবেক ব্যান্ড দল ‘অ্যাবাউট ডার্ক’র গিটারিস্ট ও এই গানটির গীতিকার মো. নাসির উল্লাহ নোবেলের গানটিকে ‘চুরি করা’ বলে অভিযোগ তোলেন। এরপর নোবেলের পেজে যিনিই নেতিবাচক কমেন্ট করেছেন, তাকেই পেজে ব্লক করে দেওয়া হয়েছে। নোবেলের শেয়ার করা গানের ভিডিও নিজের ওয়ালে শেয়ার করে নাসির তার অভিযোগ তুলে ধরেন।  

তিনি লেখেন, ‘আবারও নোবেল স্ট্রাইক! এতবার নিষেধ করার পরও আমার কথা শুনলো না। আমার হাতে পায়ে ধরার পরও আমি তাকে গানটি দেইনি। আমার গান তাকে আমি কেনো দেব? তার নাকি একশো গান আছে, তাহলে আমার গান কাভার কেনো করে? কাভার করেছে ঠিক আছে, তাতে আবার নাম দিয়েছে তার নিজের। ’

নোবেলের শেয়ার করা গানের ভিডিও নিজের ওয়ালে শেয়ার করে নাসির তার অভিযোগ তুলে ধরেন।

নোবেলের বিরুদ্ধে গান চুরির অভিযোগ প্রসঙ্গে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’ ব্যান্ডদলের গিটারিস্ট ও প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এরফান আহমেদ পূর্ণ বলেন, ‘সম্প্রতি নোবেল যে গানটি নিজের বলে প্রকাশ করেছিল, সে গানটি ২০০৫ সালে নাসির উল্লাহ ভাইয়ের লেখা। ২০১৬ সালে গানটিতে দুইটি লাইন সংযোজন করে নোবেল। তাকে দল থেকে বের করে দেওয়ার পর আমরা নোবেলের ওই দুই লাইন বাদ দিয়ে গানটি নতুন করে ‘তুমি’ শিরোনামে চলতি বছরের জানুয়ারিতে প্রকাশ করেছি। ’

‘এক বছর আগেও নোবেল এই গানটি নিজের দাবি করে প্রকাশ করেছিল। তবে সমালোচনার মুখে সে সময়ও গানটি সরিয়ে নিতে বাধ্য হয় সে। আর এবার যে গানটি নোবেল প্রকাশ করেছে সেটা হলো আমাদের গান প্রকাশের আগে প্রাকটিস করা গানের রেকর্ড ভার্সনটা’, যোগ করেন তিনি।

২০১৮ সালের ৬ জুন নোবেল তার সেই কাজের জন্য ক্ষমা চেয়ে ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দিয়েছিলেন।

নিজের ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেন নোবেল

নোবেলের গান চুরির অভিযোগ সম্পর্কে বলতে গিয়ে পূর্ণ আরও জানান, ২০১৬ সালে ব্যান্ড দল ‘অ্যাবাউট ডার্ক’ প্রতিষ্ঠিত হয়। গান প্রকাশের সময় নোবেল এই ব্যান্ড দলে যোগ দেন। তবে ব্যান্ডের বিভিন্ন যন্ত্রপাতি আত্মসাৎ করার অভিযোগে তাকে ব্যান্ড থেকে কিছুদিন পরই বের করে দেওয়া হয়।  

সম্প্রতি নোবেল যে গানটি নিজের বলে প্রকাশ করেছিলেন, সেটি ২০০৫ সালে নাসির উল্লাহর লেখা। ২০১৬ সালে গানটিতে দু’টি লাইন সংযোজন করে নোবেল। তবে তাকে দল থেকে বের করে দেওয়ার পর তার ওই দুই লাইন বাদ দিয়ে গানটি নতুন করে ‘তুমি’ শিরোনামে চলতি বছরের ৪ জানুয়ারি প্রকাশ করে ব্যান্ডটি।

এই ‘তুমি’ শিরোনামের গানটি ‘দেশ’ নামে নতুন করে ছেড়েছিলেন নোবেল:

এর আগেও সমালোচিত হয়েছেন সংগীতশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক নারীর সঙ্গে তার আপত্তিকর ছবি প্রকাশের পর ব্যাপক সমালোচনায় আসেন নোবেল। এরপর কিছুদিন আলোচনা বন্ধ থাকলেও এবার গান চুরির অভিযোগ হতাশ করেছে তার ভক্তদের।  

বাংলাদেশ সময়: ১২৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২২, ২০১৯
এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa