ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

লাউয়াছড়ায় বৃক্ষ নিধন অব্যাহত, হুমকিতে জীববৈচিত্র্য

বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন, ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৯
লাউয়াছড়ায় বৃক্ষ নিধন অব্যাহত, হুমকিতে জীববৈচিত্র্য লাউয়াছড়ায় সাম্প্রতিক বৃক্ষনিধন। ছবি- বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের মাগুরছড়া এলাকার সংরক্ষিত বনাঞ্চলের একটি টিলা থেকে দু’টি গাছের খণ্ডাংশ ও ৩০ বান্ডেল বেত উদ্ধার করেছে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ।

গত এক সপ্তাহে মাগুরছড়া এলাকার ওই টিলা থেকে আরও ৯টি গাছ চুরির ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়।  

সংরক্ষিত লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান থেকে বিভিন্ন সময়ে গাছ চুরির ফলে কমছে প্রাকৃতিক নৈসর্গিক পরিবেশ।

খাবার ও আবাসস্থল সংকোচনের কারণে বিভিন্ন সময়ে বন্যপ্রাণী লোকালয়ে চলে এসে ধরা পড়ে এবং কোনো কোনো ক্ষেত্রে মারাও যায়। ক্রমাগত বৃক্ষ নিধনের ফলে বনের গভীরতা হ্রাস, ঝোপজঙ্গল কমে যাওয়ার কারণে জাতীয় উদ্যানের জীববৈচিত্র্য চরম হুমকির মুখে পড়েছে।

প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ সূত্র জানায়, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত ভানুগাছ-শ্রীমঙ্গল সড়কের মাগুরছড়া এলাকার ঝোপঝাড় থেকে বেশ কিছু বেত (স্থানীয় ভাষায় গল্লাবেত) কাটা হয়। সোমবার (২৮ জানুয়ারি) সকালের দিকে বন্যপ্রাণী বিভাগ খবর পেয়ে চোরাই ৩০ বান্ডেল বেত উদ্ধার করেছে। গত এক সপ্তাহ ধরে বনের টিলার ঐ একই স্থান থেকে দুই তিন দফায় ১১টি গাছ কেটে ফেলে গাছ চোরাকারবারীরা। মেহগনি, চিকরাশিসহ কয়েকটি প্রজাতির ৯টি গাছ কেটে খণ্ডাংশ করে গাছ চোরচক্র পাচার করে।

সবশেষ একই স্থান থেকে রোববার (২৭ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে আরও দু’টি গাছ কেটে ফেলে ঐ চক্রটি। তবে ঐ গাছের খণ্ডাংশ তারা নিতে পারেনি। বনবিভাগ সোমবার দুপুরে কেটে ফেলা স্থান থেকে গাছের খণ্ডাংশ উদ্ধার করে পিকআপযোগে লাউয়াছড়া বনবিট অফিসে নিয়ে যায়।  

লাউয়াছড়া বনবিট কর্মকর্তা উদ্ধারকৃত গল্লাবেত ও কেটে ফেলা গাছের মূল্য নির্ধারণ করতে না পারলেও ধারণা করা হচ্ছে ৩০ বান্ডেল বেত ও ১১টি গাছের বাজারমূল্য সাড়ে তিন লাখ টাকার বেশি হবে। কেটে ফেলা এসব গাছের গোড়ায় বনবিভাগ লাল কালিতে ক্রস চিহ্ন দিয়ে রাখে।

মৌলভীবাজারের বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতিক সংরক্ষণ বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোনায়েম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বাংলানিউজকে বলেন, সোমবার ৯ টুকরা চিকরাশি কাঠ ও ৩০ বান্ডেল বেত বিট অফিসে নিয়ে আসা হয়েছে। চোরচক্র গাছ কেটে ফেলার সংবাদ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই অভিযান চালিয়ে এগুলো উদ্ধার করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৮, ২০১৯
বিবিবি/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa