ঢাকা, সোমবার, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ফিচার

ইংরেজদের হীন মানসিকতার ছাপ হাজারদুয়ারীতেও

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৪ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০১৭
ইংরেজদের হীন মানসিকতার ছাপ হাজারদুয়ারীতেও হাজারদুয়ারী সিম্বল

হাজারদুয়ারী, মুর্শিদাবাদ, পশ্চিমবঙ্গ থেকে: পলাশীর প্রান্তরে বাংলা-বিহার-উড়িষ্যার শেষ স্বাধীন নবাব সিরাজউদ্দৌলার পরাজয়ে বাঙালির স্বাধীনতার সূর্য অস্তমিত হয়। মীর জাফরের বিশ্বাসঘাতকতায় বাঙালি জাতিকে বহন করতে হয় প্রায় দুইশ’ বছরের পরাধীনতার গ্লানি।

পরাধীন ভারতবর্ষে বরাবরই বাঙালিদের সঙ্গে বিমাতাসুলভ আচরণ করতেন ইংরেজরা।

নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে হত্যার পর ইংরেজরা মনসদে বসিয়েছিলেন বিশ্বাসঘাতক মীর জাফরকে।

সিরাজউদ্দৌলার স্মৃতিবিজড়িত দু’একটি বাদে গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন সব স্থাপনা। এর প্রায় ৮০ বছর পর ১৮৩৭ সালের দিকে মুর্শিদাবাদের হাজারদুয়ারীতে তৈরি করা হয় ব্রিটিশ হাইকোর্ট। যা এখন হাজারদুয়ারী প্যালেস বা মিউজিয়াম নামে পরিচিত।

ইংরেজরা হাজারদুয়ারী নির্মাণের ক্ষেত্রেও দেখিয়েছে হীন মাসনিকতা। হাজারদুয়ারীতে যে ব্রিটিশ সিম্বলটি রয়েছে তা তাদের হীন মানসিকতারই পরিচয় বহন করে।

সিম্বলটির অর্থ ব্যাখ্যা করে হাজারদুয়ারীর পর্যটক গাইড হাছিমুল হক বাংলানিউজকে বলেন, হাজারদুয়ারী মূলত নির্মিত হয়েছিল মীর জাফরের পঞ্চম বংশধর পরাধীন নবাব হুমাউন জার সময়কালে। মাছ, বাইবেল, সিংহ, ঘোড়া ও শিকলের সমন্বয়ে নির্মিত সিম্বলটির ব্যাখ্যা রয়েছে। সিম্বলের ওপরের অংশে যে মাছটি দেখা যায়, তা হলো ভালো কিছুর প্রতীক। তাই তারা মাছ দিয়েই সিম্বলটি শুরু করেছেন। এর পরেই রয়েছে তাদের ধর্মগ্রন্থ বাইবেল। বাইবেলটি রয়েছে একটি দণ্ডের ওপরে। দণ্ডটি তারা ইংল্যান্ডের বার্মিংহাম প্যালেসের অনুকরণে করেন। এরপর সিম্বলের বাম পাশে রয়েছে একটি সিংহ। এর বিপরীত দিকে রয়েছে ঘোড়া। ইংরেজরা নিজেদের সিংহের মতো শক্তিশালী মনে করতেন আর বাঙালিদেরকে ঘোড়ার সঙ্গে তুলনা করতেন। সবচেয়ে দু:খজনক হলো, সিম্বলের ঘোড়াটি শিকল দিয়ে বাধা। নবাব সিরাজউদ্দৌলার পর যারা মনসদে বসেছেন, সবাই ছিলেন পরাধীন। তাই ঘোড়াটি শিকল দিয়ে বেধে পরাধীনতাকে বোঝানো হতো।
 
পার্কার বলেন, ‘ইংরেজরা এতোটাই খারাপ ছিলেন যে, তারা সিম্বলটি তৈরির ক্ষেত্রেও হীন মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। আমরা দর্শনার্থীদের সবার আগে এটিই দেখাই এবং সিম্বলটির অর্থ ব্যাখ্যা করে সবার মধ্যে দেশাত্মবোধ জাগ্রত করার চেষ্টা করি।

সিম্বলটি দেখে দর্শনার্থী আমিরুজ্জামান বাবু বাংলানিউজকে বলেন, ‘ইংরেজরা আমাদের দুইশ’ বছর শোষণ করেছেন। আমাদের সঙ্গে বিমাতাসুলভ আচরণের হীন মানসিকতার ছাপ রেখে গেছেন হাজারদুয়ারীর খোদাই করা সিম্বলে’।

বাংলাদেশ সময়: ০০৪৫ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০১৭
এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa