ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

ফিচার

ইতিহাসের এই দিনে

কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০১৭
কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভাল, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলা নিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিনে’।

২৫ নভেম্বর, ২০১৭, শনিবার। ১১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।  

ঘটনা
১৫৩৮- পর্তুগিজ নৌবাহিনী ভারত থেকে নৌ-সেনাদের সরিয়ে নিয়ে যায়।
১৮১৩- জেনারেল হেস্টিংসের উপস্থিতিতে কলকাতার বিখ্যাত চৌরঙ্গী থিয়েটারের উদ্বোধন হয়।
১৯৩৬- জার্মানি ও জাপান কমিউনিস্ট ইন্টারন্যাশনাল বিরোধী চুক্তি স্বাক্ষর করে।
১৯৯১- খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন।

জন্ম
১৮৯৮- দেবকী বসু, ভারতীয় অভিনেতা, পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার।
১৯১৫- রন হামেন্স, অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার।
১৯৩৩- শক্তি চট্টোপাধ্যায়, বাঙালি কবি। পশ্চিমবঙ্গের জয়নগর মজিলপুরের দরিদ্র ব্রাহ্মণ পরিবারে তার জন্ম। তিনি জীবনানন্দ-উত্তর যুগের বাংলা সাহিত্যের একজন প্রধান আধুনিক কবি। বাঙালি-ভারতীয় এই কবি বিংশ শতাব্দীর শেষ ভাগে বিশেষভাবে পরিচিত এবং আলোচিত হন। তার অনেকগুলো কবিতার বইয়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- এ প্রেম হে নৈঃশব্দ্য (১৯৬২), ধর্মে আছো জিরাফেও আছো (১৯৬৭), সোনার মাছি খুন করেছি (১৯৬৮), অন্ধকার নক্ষত্রবীথি তুমি অন্ধকার (১৯৬৮), হেমন্তের অরণ্যে আমি পোস্টম্যান (১৯৬৯), চতুর্দশপদী কবিতাবলী (১৯৭০), পাড়ের কাঁথা মাটির বাড়ি (১৯৭১), প্রভু নষ্ট হয়ে যাই (১৯৭২), সুখে আছি (১৯৭৪), ঈশ্বর থাকেন জলে (১৯৭৫), যেতে পারি কিন্তু কেন যাবো (১৯৮৩)। সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কারসহ তিনি একাধিক পুরস্কারে ভূষিত।

মৃত্যু
১৯১১- পল লাফাগ, ফরাসি মার্কসবাদী নেতা।
১৯৭০- ইউকিও মিশিমা, জাপানি ঔপন্যাসিক ও নাট্যকার।
১৯৯৮- ফ্লিপ উইলসন, মার্কিন রম্য অভিনেতা।

বাংলাদেশ সময়: ০০০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০১৭
এনএইচটি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।