ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

নিলামে পেলে-ম্যারাডোনার জার্সি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯
নিলামে পেলে-ম্যারাডোনার জার্সি ছবি: সংগৃহীত

অনেকের মতে, কালো মানিক খ্যাত পেলে ফুটবল ইতিহাসের সর্বকালের সেরা নাম। আন্তর্জাতিক ফুটবলে ব্রাজিলের হয়ে শেষ ম্যাচে তিনি যে জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছিলেন, ইতালির নিলামে সেই জার্সি বিক্রি হয়েছে রেকর্ড ৩০ লাখ ইউরোতে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ২৮ লাখ টাকারও বেশি।

২০১৬ সালের জুনেও একবার এই ফুটবল কিংবদন্তির স্মৃতির সাথে জড়িত কিছু জিনিস নিলামে উঠেছিল। সেবার নিলামে পেলের প্রায় ২ হাজার ব্যবহৃত জিনিসের মধ্যে ছিল বিশ্বকাপ জয়ের মেডেল, যে ফুটবল দিয়ে তিনি তার খেলোয়াড় জীবনের এক হাজারতম গোলটি করেছিলেন সেই ফুটবল, তার বুট, জার্সি এবং ফিফার শতাব্দীর সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার।

ব্রাজিলের জেতা পাঁচ বিশ্বকাপের তিনটিই এসেছে পেলের হাত ধরে। ১৯৫৮, ১৯৬২ এবং ১৯৭০ সালে বিশ্বকাপ জেতেন তিনি। এই কিংবদন্তির ব্রাজিলের হয়ে খেলা শেষ ম্যাচের জার্সি পাওয়ার চাহিদা তো থাকবেই। তিনবারের বিশ্বকাপ জয়ী ১৯৭১ সালে মারাকানায় জাতীয় দলের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন যুগোস্লাভিয়ার বিপক্ষে। ওই ম্যাচের জার্সিই ইতালির তুরিনে উঠেছিল নিলামে।

তুরিনে হওয়া নিলামে শুধু পেলের জার্সি নয়, বিক্রি হয়েছে তার অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনার জার্সিও। ১৯৮৯-৯০ সালে নাপোলির যে জার্সি গায়ে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি খেলেছিলেন, সেটি বিক্রি হয়েছে সাড়ে ৭ হাজার ইউরোয়।

১৯৭১ সালের উয়েফা সুপার কাপের ফাইনালে ইতালিয়ান ডিফেন্ডার লুসিয়ানো স্পিনোসির গায়ে জড়ানো জুভেন্টাসের জার্সিটিও নিলামে তোলা হয়েছিল। সেটি বিক্রি হয়েছে ৯ হাজার ৪০০ ইউরোতে।

এছাড়া, ইতালিয়ান সাইক্লিং তারকা ফাউস্তো কোপ্পির হলুদ জার্সি বিক্রি হয়েছে। ১৯৫২ সালের ট্যুর ডি ফ্রান্স জেতা জার্সি বিক্রি হয়েছে ২৫ হাজার ইউরোয়।

বাংলাদেশ সময়: ০৮২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৭, ২০১৯
এমআরপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।