ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

বার্সার প্রতিপক্ষ নাপোলি, রিয়ালের ম্যানসিটি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯
বার্সার প্রতিপক্ষ নাপোলি, রিয়ালের ম্যানসিটি ছবি: সংগৃহীত

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের প্রতিপক্ষ স্পেনের অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ, স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ নাপোলি, টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ১৩ বার শিরোপাজয়ী রিয়াল মাদ্রিদের প্রতিপক্ষ ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি।

এই মৌসুমে নকআউট পর্বে উঠে ১৬টি জায়ান্ট দল। শেষ ষোলোর টিকিট নিশ্চিতে স্পেন আর ইংল্যান্ড থেকে উঠেছে সর্বোচ্চ চারটি করে ক্লাব।

ইতালির লিগের তিনটি, জার্মানির তিনটি, ফ্রান্সের দুটি ক্লাব উঠে শেষ ষোলোতে।

স্পেনের বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ, অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গী হয়েছে ভ্যালেন্সিয়া। ২০১২-১৩ মৌসুমের পর স্পেন থেকে একসাথে আবারও চারটি ক্লাব উঠে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা ম্যানচেস্টার সিটি, লিভারপুল, চেলসি আর টটেনহ্যাম উঠে নকআউট পর্বে। ইতালির সিরি আ’তে খেলা আটালান্টা, নাপোলি আর জুভেন্টাস নিশ্চিত করে শেষ ষোলো।

এদিকে, জার্মান বুন্দেসলিগা থেকে উঠে বায়ার্ন মিউনিখ, বরুশিয়া ডর্টমুন্ড আর লিপজিগ। আর ফরাসি লিগ ওয়ান থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলো নিশ্চিত করে পিএসজি এবং লিও।

কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট নিশ্চিতে বরুশিয়ার বিপক্ষে লড়তে হবে নেইমার-এমবাপে-ডি মারিয়া-কাভানিদের পিএসজিকে। স্প্যানিশ জায়ান্ট জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদের প্রতিপক্ষ ইংলিশ জায়ান্ট সার্জিও আগুয়েরোর ম্যানচেস্টার সিটি। ইতালির আটালান্টা প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে স্পেনের ভ্যালেন্সিয়াকে।

আরেক স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ পেয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলকে। ইংলিশ ক্লাব চেলসি শেষ ষোলোতে মুখোমুখি হবে জার্মানির চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের। ফরাসি ক্লাব লিও মুখোমুখি হবে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো-দিবালা-হিগুয়েনদের জুভেন্টাসের বিপক্ষে। টটেনহ্যামের প্রতিপক্ষ জার্মানির লিগজিগ। আর বার্সেলোনা প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে ইতালির নাপোলিকে।

এর আগে গ্রুপ ‘এ’র চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট পাওয়া পিএসজি আর ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। ক্লাব ব্রুগা নেমে গেছে ইউরোপা লিগে। গ্রুপ ‘বি’ থেকে চ্যাম্পিয়ন ৬ ম্যাচের সবকটিতে জিতে ১৮ পয়েন্ট পাওয়া বায়ার্ন মিউনিখ। ১০ পয়েন্ট নিয়ে এই গ্রুপের রানার্সআপ টটেনহ্যাম। ইউরোপা লিগে খেলবে অলিম্পিয়াকোস।

গ্রুপ ‘সি’র চ্যাম্পিয়ন ৬ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট পাওয়া ম্যানচেস্টার সিটি। ৭ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ আটালান্টা। ৬ পয়েন্ট পাওয়া শাখতার দোনেস্ককে খেলতে হবে ইউরোপা লিগ। গ্রুপ ‘ডি’ থেকে ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট পাওয়া জুভেন্টাস চ্যাম্পিয়ন হয়। ১০ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ হয় অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। বায়ার লেভারকুসেনকে খেলতে হবে ইউরোপা লিগে।

৬ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘ই’র সেরা লিভারপুল। ১২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ নাপোলি। ইউরোপা লিগে খেলতে হবে সালজবুর্গকে। ‘এফ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ৬ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট পাওয়া বার্সেলোনা। আর ১০ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। ইন্টার মিলানকে খেলতে হবে ইউরোপা লিগে।

গ্রুপ ‘জি’র সেরা ৬ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট পাওয়া লিপজিগ। লিও ৮ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ। বেনফিকাকে খেলতে হবে ইউরোপা লিগে। আর ‘এইচ’ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন ৬ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট পাওয়া ভ্যালেন্সিয়া। চেলসি ১১ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ। আয়াক্সকে খেলতে হবে ইউরোপা লিগে।

শেষ ষোলোয় যে যার প্রতিপক্ষ:
বরুশিয়া-পিএসজি
রিয়াল-ম্যানসিটি
আটালান্টা-ভ্যালেন্সিয়া
অ্যাতলেতিকো-লিভারপুল
চেলসি-বায়ার্ন
লিও-জুভেন্টাস
টটেনহ্যাম-লিগজিগ
বার্সা-নাপোলি

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯
এমআরপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।