ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

ফুটবল

উত্তর বারিধারাকে হারালো মুক্তিযোদ্ধা

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯
উত্তর বারিধারাকে হারালো মুক্তিযোদ্ধা উত্তর বারিধারাকে হারালো মুক্তিযোদ্ধা। ছবি: শোয়েব মিথুন

ফেডারেশন কাপ ফুটবলে জয় পয়েছে মুক্তিযোদ্ধো সংসদ ক্রীড়া চক্র। ‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে উত্তর বারিধারা ক্লাবকে ২-১ গোলে হারিয়েছে মুক্তিযোদ্ধা। এই জয়ে ফেডারেশর কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে মুক্তিযোদ্ধা।

মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচের ১৪ মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছি্ল মুক্তিযোদ্ধা। পেনাল্টি বক্সের মধ্যে গোলরক্ষককে একা পেয়েয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন মুক্তিযোদ্ধার ক্যামেরুনের স্ট্রাইকার বিয়াগা এমিলি।

৩০ মিনিটে সুযোগ পেয়েছিলে উত্তর বারিধারাও। ডার্বো ল্যান্ডিংয়ে শট খুব সহজেই ফিরিয়ে দেন উত্তর বারিধারা গোলরক্ষক।

তবে ৪০ মিনিটে ঠিকই সাফল্যের দেখা পায় উত্তর বারিধারা। নয়নের বাড়িয়ে দেওয়া বল পেনান্টি বক্সের ভেতরে পেয়ে যান আরিফ এবং তার কাছ থেকে পান ল্যান্ডিং। ঠান্ডা মাথায় দুই ডিফেন্ডারের মাঝখান দিয়ে ডান পায়ের শটে বল জালে পাঠান এই গাম্বিয়ান স্ট্রাইকার।

উত্তর বারিধারাকে হারালো মুক্তিযোদ্ধা।  ছবি: শোয়েব মিথুন

পিছিয়ে পড়ে সমতায় ফিরতে চেষ্টা চালায় মুক্তিযোদ্ধা। তবে হতাশ হননি তারা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ের শেষ মিনিটে সমতা ফেরে দলটি। পেনাল্টি বক্সের ডান দিকে থেকে সারোয়ার নিপুর ক্রস থেকে দারুল প্লেসিং শটে গোল করেন ইসমাইল বাঙ্গুরা। ফলে ১-১ গোলে সমতায় শেষ হয় প্রথমার্ধ।

বিরতির পর এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল মুক্তিযোদ্ধা। ৫৮ মিনিটে বাঙ্গুরার পাস থেকে গোললাইনের খুব কাছে বল পেয়ে যান মুক্তিযোদ্ধার জাপানি অধিনায়ক নিরিতো হাসহিগুচি। কিন্তু গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন তিনি।

৬৪ মিনিটে বাঙ্গুরা আরও একটি সুযোগ পেয়েছিলেন কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেননি। তবে ৭৩ মিনিটে আর সুযোগ হাতাছাড়া করেনি মুক্তিযোদ্ধা। মাহাদি হাসানের থ্রু পাস থেকে বল পেয়ে যান নিরিতো। পেনাল্টি বক্সের সামন্য ভেতর থেকে দারুণ এক শটে গোল করেন মুক্তিযোদ্ধার অধিনায়ক।

এরপর বাকিটা সময় উত্তর বারিধারা আর সমতায় ফিরতে না পারলে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মুক্তিযোদ্ধো সংসদ ক্রীড়া চক্র।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯
আরএআর/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।