ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৫ রজব ১৪৪৪

ফুটবল

এবার চেলসি পরিচালকের পদও হারালেন আব্রামোভিচ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৫ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০২২
এবার চেলসি পরিচালকের পদও হারালেন আব্রামোভিচ

রোমান আব্রামোভিচের সম্পদের ওপর ব্রিটিশ সরকার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এ কারণে এরইমধ্যে চেলসির মালিকানা হারানোর পথে এই রুশ ধনকুবের।

এবার ব্লুজদের পরিচালকের পদ থেকেও তাকে সরিয়ে দিল প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ।

গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে থাকা নিজের সকল সম্পদের ওপর অধিকার হারিয়েছেন আব্রামোভিচ। ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার হামলা শুরুর কিছুদিনের মধ্যে এই নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়েন তিনি। অভিযোগ উঠেছে, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে তার। এর জেরে যুক্তরাজ্যে থাকা তার সব সম্পদ জব্দ করা হয়। ফলে চেলসির মালিকানা ছাড়তে হচ্ছে তাকে। এবার গেল ক্লাবটির পরিচালক পদও।

চেলসির পরিচালকের পদ হারানোর ফলে আব্রামোভিচের ক্লাবটিকে বেচে দেওয়ার পথ কঠিন হয়ে গেল। তবে প্রিমিয়ার লিগ বলছে, আব্রামোভিচ পদ হারানোর প্রভাব ক্লাবটির অনুশীলন ও খেলার ওপর পড়বে না। কিন্তু ক্লাবের বোর্ড থেকে মূল মালিককে এভাবে সরিয়ে দেওয়ার পেছনে অন্য কারণ দেখছেন অনেকে। ধারণা করা হচ্ছে, তার মালিকানায় থাকা চেলসির শেয়ার বিক্রির জন্য চাপ প্রয়োগের উদ্দেশ্যেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে লিগ কর্তৃপক্ষ।

এদিকে গত ২ মার্চ যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টে নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে আলোচনা শুরু হতেই চেলসির মালিকানা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন আব্রামোভিচ। এরপর আমেরিকার এক বিনিয়োগ ফার্মকে চেলসি বেচার দায়িত্ব দেন তিনি। তাদের পক্ষ থেকে শুরুতে চেলসির জন্য ৩ বিলিয়ন পাউন্ড মূল্য হাঁকানো হয়। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে এত দামে বেচা সম্ভব নয় বলেই ধারণা করছেন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।  

ব্রিটিশ সরকার চেলসির বেচার ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড় দেওয়ার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করছে বলে জানা গেছে। তবে এজন্য বেশকিছু শর্ত বেঁধে দেওয়া হতে পারে। তেমনই একটি শর্ত হতে পারে, আব্রামোভিচ নিজে কোনোভাবেই বিক্রির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পারবেন না। তার শেয়ার বিক্রি করে পাওয়া অর্থ দিয়ে ক্লাবের খরচ মেটানোর ব্যবস্থা করা হবে। তবে ক্লাবটি আপাতত ম্যাচের টিকিট (যেগুলো এখন বিক্রি হয়নি) থেকে অর্থ আয় করতে পারবে না। এমনকি ক্লাবের নিজস্ব শোরুমে থাকা ক্রীড়া সামগ্রী বেচার অর্থও হিসাবের মধ্যে ধরতে পারবে না স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের ক্লাবটি।

শুধু কি তাই, আব্রামোভিচ যতদিন চেলসির মালিক হিসেবে থাকবেন ততদিন খেলোয়াড় কেনাবেচা কিংবা চুক্তি নবায়ন কোনোটাই করতে পারবে না চেলসি। ব্রিটিশ সরকার বিশেষ লাইসেন্স দেওয়ার যে অনুমোদন দিয়েছে, সেই অনুযায়ী ঘরের মাটিতে ম্যাচগুলোর জন্য সর্বোচ্চ ৯ লাখ পাউন্ড খরচ করতে পারবে চেলসি। সফরে গেলে ম্যাচপ্রতি ২০ হাজার করে পাবে দলটি।  

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০২২
এমএইচএম 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa