ঢাকা, শনিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

ফুটবল

আমাদের হারানোর কিছু নেই-কাবরেরা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২০ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২২
আমাদের হারানোর কিছু নেই-কাবরেরা

মালয়েশিয়ায় চলমান এএফসি বাছাই পর্বের ম্যাচে প্রথম দুই ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। গ্রুপের শেষ ম্যাচে আগামীকাল মালয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

এই ম্যাচে নির্ভার বাংলাদেশ ফুটবল দল, কারণ ম্যাচে প্রত্যাশার চাপ রয়েছে স্বাগতীক মালয়েশিয়ার উপর। দুই ম্যাচ হেরে বাংলাদেশের মূল পর্বে খেরার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। এই ম্যাচে জয় পেলেও নানান হিসেব নিকেশ থাকবে বাংলাদেশের সামনে। অন্যদিকে মালয়েশিয়ার সামনে রয়েছে মূল পর্বে খেলার সুযোগ তবে জয় ছাড়া কোনও বিকল্প নেই তাদের সামনে। ফলে চাপ থাকবেন তারা। আর বাংলাদেশ খেলবে নির্ভার ফুটবল আজ (১৩ জুন) সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন দলের কোচ হ্যাভিয়ের কাবরেরা।

এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে আগামীকাল (১৪ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টায় কুয়ালালামপুরের বুকিত জলিল স্টেডিয়ামে স্বাগতিক মালয়েশিয়ার বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। গ্রুপের দুই ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে মালয়েশিয়া হেরেছে এক ম্যাচে। এই ম্যাচে জয় পেলে টিকে থাকবে মূল পর্বে খেলার সম্ভাবনা।  

ফিফা র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক এগিয়ে মালয়েশিয়া। তার উপর নিজের ঘরের মাঠে খেলা। সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপ। সব মিলিয়ে প্রত্যাশার চাপে ডুবতে পারে মালয়েশিয়া। আর এই সুযোগ কাজে লাগাতে চান কাবরেরা। তিনি বলেন, 'আমাদের ওপর কোনো চাপ নেই। সব চাপ মালয়েশিয়ার ওপর। তারা তাদের ঘরের মাঠে খেলবে, র‍্যাঙ্কিংয়েও এগিয়ে, এশিয়ান কাপে খেলার সুযোগ তাদের সামনে। ’

তবে এই ম্যাচে ভালো সুযোগ দেখছেন কাবরেরা। তিনি বলেন, ‘আবারও বলছি আমাদের সামনে দারুণ সুযোগ। আমাদের জন্য এটাই সঠিক সময় দেখানোর যে আমরা যে কারও বিপক্ষে লড়তে পারি। আমরা ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে লড়তে চাই তবে একটা জিনিস বলতে চাই আমাদের সত্যি ভালো একটা ফল প্রাপ্য। আমাদের সমর্থকদের ভালো একটা ফল উপহার দিতে চাই। ভালো একটা ফল নিয়ে দেশে ফিরতে চাই, দেশকে কিছু একটা উপহার দিতে চাই। কাল আমরা আমাদের সেরাটাই উপহার দেব। '

এই ম্যাচেও রক্ষণ সামলে রেখে খেলতে চান কাবরেরা। রক্ষণ সামলে সুযোগ বুঝে আক্রমনে যেতেদ চান তিনি। আগের ম্যাচে ভালো খেলার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। কাবরেরা বলেন, ‘আমরা সবসময়ই জিততে চাই। সব সময়ই এটা আমাদের লক্ষ্য। কিন্তু জিততে হলে খেলায় আমাদের ধারাবাহিক হতে হবে। প্রতিটা জায়গাতেই ধারাবাহিক হতে হবে। মালয়েশিয়া তাদের সর্বস্ব দিয়ে লড়বে। শুরুর সেকেন্ড থেকেই তারা আমাদের ওপর ঝাঁপাবে। শুরুর ১০ মিনিটেই তারা ম্যাচটা শেষ করে দিতে চাইবে। আমাদের গোল করতে হবে, মনোযোগ ধরে রাখতে হবে, তাদের ঠেকিয়ে রেখে তাদের ভুলের সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। '

স্বাগতিকদের ম্যাচ তাই বুকিত জলিল স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে ঠাঁই ফেলানোর জায়গা থাকবে না। এত দর্শকের সামনে খেলতে পারা বাড়তি অনুপ্রেরণা জোগাবে খেলোয়াড়দের মনে করছেন কাবরেরা, 'স্বাগতিক দলের বিপক্ষে ম্যাচ, কঠিন একটা চ্যালেঞ্জ। আমাদের জন্য ৭০ হাজার দর্শকের সামনে খেলতে পারাটা শুধু অতিরিক্ত অনুপ্রেরণাই নয়, অনেক ফুটবলারের জন্য এটা স্বপ্নের মতো। এতো দর্শকের সামনে, এমন একটা পরিবেশ, এমন একটা দলের বিপক্ষে খেলা যারা বড় কিছুর প্রত্যাশায় লড়ছে। আমাদের জন্য এটাই সঠিক সময় দেখানোর যে আমরা যে কারও বিপক্ষে লড়তে পারি। ইন্দোনেশিয়াসহ শেষ তিন ম্যাচে আমরা যে পারফরম্যান্স করেছি সেটা ধরে রাখতে হবে। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৭২২ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২২
এআর
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa