ঢাকা, শনিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ আগস্ট ২০২২, ২১ মহররম ১৪৪৪

ফুটবল

সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েও গোলের আক্ষেপ আঁখির

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১৩ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০২২
সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েও গোলের আক্ষেপ আঁখির

মালয়েশিয়ার বিপক্ষে ১-০ ব্যাধানে দুই ম্যাচের ফিফা ফ্রেন্ডলি সিরিজ জয় করেছে বাংলাদেশের নারী ফুটবল দল। প্রথম ম্যাচে ৬-০ গোলে জয়ে নিয়ে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ম্যাচে গোলশূণ্য ড্র; তবে সিরিজটা নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই সিরিজের সর্বোচ্চ গোলদাতার ট্রফি জিতেছেন আঁখি খাতুন। প্রথম ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন তিনি। ম্যাচের পর বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর’কে জানালেন নিজের অনুভূতির কথা।

বাংলানিউজ- আঁখি প্রথম ম্যাচে ৬-০ গোলের জয়, দ্বিতীয় ম্যাচে গোল শূণ্য ড্র এই বিষয়ে কি বলবেন?

আঁখি- আসলে আমরা নিজেদের সর্বোচ্চটা দিয়েই চেস্টা করেছি। এই ম্যাচেও আমরা অনেক আক্রমন করেছি। তবে শেষ পর্যন্ত গোল হয়নি। আপনারা দেখেছেন আক্রমনে আমরাই এগিয়ে ছিলাম। আমরা চেস্টা করেছি তবে গোল হয়নি।

বাংলানিউজ- আপনার কি মনে হয় গোল হলো না ক্যানো এই ম্যাচে? সমস্যাটা কোথায় ছিল?

আঁখি- আসলে আমি তেমন কোনও সমস্যা দেখছি না। আপনারাও দেখেছেন পুরো ম্যাচে আমরা কতগুলো ভালো সুযোগ তৈরি করেছি। আমরা নিজেদের সেরটা দেয়ারই চেস্টা করেছি। তবে ভাগ্য সহায় ছিল না হয়তো।

বাংলানিউজ- দলের ডিফেন্ডার আপনি, আপনার হাতে উঠলো সর্বোচ্চ গোলদাতার ট্রফি। কেমন লাগছে?

আঁখি- আসলে আমি সবময় দলের  জন্য ভালো কিছু করার চেস্টা করি। আমাদের আগে থেকেই নির্দেশনা দেয়া থাকে। যেমন সেট পিসে আমার উপরে উঠে আসার নির্দেশনা রয়েছে। তাই আমি গোল গুলো পেয়ছি। এছাড়া আগে থেকেই দলের পরিকল্পনা করা থাকে। আমরা মাঠে সেটা বাস্তবায়নের চেস্টা করি। আর সর্বোচ্চ গোলদাতা হতে পেরেছি। এটা সত্যিই আনন্দের। এই ম্যাচেও দল গোল পেলে আরও বেশি ভালো লাগতো।

বাংলানিউজ- সামনে সাফ টুর্নামেন্ট আসছে। এর আগে মালয়েশিয়ার মত দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়। দলের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে এটা কেমন ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন?

আঁখি- আসলে পরিশ্রমের কোনও বিকল্প নেই। আমরা আবার ক্যাম্পে যোগ দিচ্ছি। সাফে সব সিনিয়র দলের সঙ্গে আমাদের খেলতে হবে। বয়স ভিত্তিক টুর্নামেন্টগুলোতে আমরা ভালো করছি। এবার এখানেও ভালো কিছু করার ইচ্ছা আছে। আমরা চেস্টা করবো। এই জয়তো অবশ্যই আমাদের অনুপ্রেরনা দিবে।

বাংলানিউজ- মালয়েশিয়া দলের সঙ্গে আমার কোনও সজার অভিজ্ঞতা কি হয়েছে?

আঁখি- হ্যা। প্রথম ম্যাচে যখন আমি গোল বারের কাছে ছিলাম ওরা আমার কাছে জানতে চেয়েছে আমার বয়স কতো , আমি কি খাই? আর আজ ম্যাচ শুরু হওয়ার সময় ওদের একজনে ফুটবলার আমাকে বলছিলেন এই ম্যাচে কম গোল দিও।

বাংলানিউজ- ধন্যবাদ আঁখি। আপনার জন্য শুভকামনা।

আঁখি- আপনাদের জন্যও শুভকামনা।

বাংলাদেশ সময়: ২৪১৩ ঘণ্টা, জুন ২৭, ২০২২
এআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa