ঢাকা, শনিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

করোনা নিয়ন্ত্রণে-টিকা দানে বিশ্বকে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেওয়া উচিত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২২
করোনা নিয়ন্ত্রণে-টিকা দানে বিশ্বকে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেওয়া উচিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ছবি: রাজীন চৌধুরী

ঢাকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলছে করোনা নিয়ন্ত্রণে ও টিকা দানে বাংলাদেশকে বিশ্বের নেতৃত্ব দেওয়া উচিত।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের করোনা টিকার কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, আমরা নিজেরা টিকা নিলেও শিশুদের দেওয়া সম্ভব হয়নি তা নিয়ে অভিভাবকরা, মায়েরা খুব দুশ্চিন্তায় ছিলেন। এখন সেই দুশ্চিন্তার অবসান হলো। আমরা শিশুদের ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছি। প্রথমে পরীক্ষামূলক টিকা দেওয়া হবে। ২৫ আগস্ট থেকে সিটি কর্পোরেশন এলাকায় শিশুদের টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে।  

তিনি বলেন, দেশে এখন পর্যন্ত মোট টিকা এসেছে ৩১ কোটি নয় লাখ। আর প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে ১২ কোটি ৫৭ লাখ। যা মোট জনসংখ্যার ৭৬ শতাংশ। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন প্রায় ১২ কোটি মানুষ, যা মোট জনসংখ্যার ৭১ শতাংশ। এছাড়া বুস্টার ডোজ পেয়েছেন ২৪ শতাংশ।

দেশে করোনা নিয়ন্ত্রণ ও টিকাদানের সফলতার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা সফলভাবে করোনা নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি ও টিকাদানে ব্যাপক সফলতা অর্জন করেছি। দেশে-বিদেশে সবাই আমাদের প্রশংসা করেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ, ব্লুমবার্গ আমাদের প্রশংসা করেছে। বিশেষ করে আমেরিকার সরকার প্রশংসা করেছে। তারা এটাও বলেছে, বাংলাদেশকে বিশ্বে গ্লোবাল লিড নেওয়া উচিত টিকা দান কার্যক্রমের বিষয়ে, করোনা নিয়ন্ত্রণে এবং এই বিষয়ে ওনারা সাহায্য করবে।  

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, দেশে ১২ থেকে ১৮ বছরের শিক্ষার্থীদের ৯৮ শতাংশ প্রথম ডোজের টিকা দেওয়া হয়েছে। আর ২য় ডোজের টিকা পেয়েছেন ৮৩ শতাংশ শিক্ষার্থী। টিকায় বাংলাদেশ অনেক সাফল্য অর্জন করেছে এবং সারা বিশ্ব প্রশংসা করছে। তাই শিশুরা যাতে নিশ্চিতে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যেতে পারেন এবং শিশু সুরক্ষা নিশ্চিত করতেই এ টিকা দেওয়া হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার খুরশিদ আলমের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ডা. দীপু মনি, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আমিনুল ইসলাম খান, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার হাস প্রমুখ।  

শিশুদের মধ্যে প্রথম করোনা টিকা নেওয়া শেষে নিধি নন্দিনী কুন্ডু বলেন, টিকা নিতে আমার কোনো ভয় এবং ব্যথা লাগেনি। করোনা টিকা নিতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২২
আরকেআর/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa