ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ মে ২০২২, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

ভারত

কলকাতায় বেসরকারি স্কুলেও টিকা দেওয়া শুরু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২২
কলকাতায় বেসরকারি স্কুলেও টিকা দেওয়া শুরু

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে মেলা, খেলা, রাজনৈতিক মিটিং-মিছিল কমবেশি সবই চলছে। বাজারহাট, দোকানপাটও খোলা।

কিন্তু বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। ফলে বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিদিনই রাজ্যের স্কুল-কলেজ খোলার দাবি জোরদার হচ্ছে। শাসকদল বাদে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোও এই দাবিতে সুর চড়াচ্ছে।

এই অবস্থায় রাজ্যর শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানিয়েছেন, স্কুল খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন মুখ্যমন্ত্রী।

এক সূত্র থেকে জানা গেছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিষয়টি পর্যালোচনা করছেন। তিনি শিক্ষার্থীদের টিকারনের বিষয়ে জোর দিচ্ছেন। যাতে স্কুল খোলার পর আবার বন্ধ করে দিতে না হয়। সব পরিস্থিতি বিবেচনা করে মুখ্যমন্ত্রী ধাপে ধাপে স্কুল খোলার পক্ষে।

অভিভাবকরা জানান, দীর্ঘ দেড় বছর স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকার পর খোলা হয়েছে। সংক্রমণের কারণে আবার বন্ধ করে দিতে হয়েছে। আর যেনো তা না হয়। এজন্য তারা মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে একমত প্রকাশ করেছেন।

অপরদিকে, কয়েক সপ্তাহ আগেই ভারতের সব শহরের মধ্যে করোনা আক্রান্তের দিক দিয়ে শীর্ষে ছিল কলকাতা। যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তবে পশ্চিমবঙ্গে শনাক্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও দৈনিক মৃত্যু সংখ্যা চিন্তার ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের। এসবের মধ্যে কলকাতা অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে ১৫-১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের করোনা টিকাকরণের ক্ষেত্রে। এজন্য, রাজ্যে ৩ জানুয়ারি থেকে ১৫-১৮ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান সূত্রে জানা গেছে, কলকাতায় ১৫-১৮ বছরের শিক্ষার্থীদের মাত্র ৩৭ শতাংশ শিক্ষার্থী টিকা পেয়েছে। উত্তর ২৪ পরগনায় ওই বয়সিদের মধ্যে ৪১ শতাংশ টিকা পেয়েছে। কলকাতাকে পিছনে ফেলে অনেক এগিয়ে গেছে বাঁকুড়া, পুর্ব মেদিনিপুর, আলিপুরদুয়ার, মুর্শিদাবাদ, নদীয়া, পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো জেলাগুলো। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত রাজ্যে ১৫-১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের ৫৪ শতাংশ টিকা পেয়েছে। সে তুলনায় কলকাতা পিছিয়ে আছে।

এ পরিস্থিতিতে কলকাতা করপোরেশন সরকারি স্কুলের পাশাপাশি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেও শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু করেছে। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) টালিগঞ্জ কুঁদঘাটের মনসুর হাবীবউল্লা মেমোরিয়াল স্কুলের শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয়েছে। এদিন সেখানে টিকা নিয়েছে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকার সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা সব দিক থেকে প্রস্তুত হচ্ছি। যেদিনই রাজ্য সরকার স্কুল খোলার অনুমতি দেবে, সেদিন থেকে আমরা কার্যক্রম শুরু করে দেবো। কলকাতা করপোরেশনের সহযোগিতায় শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে করোনা টিকা দিতে পেরে আমাদেরও ভালো লাগছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২১
ভিএস/জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa