ঢাকা, সোমবার, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

শিল্প

সিগারেট থাকলে বিড়িও থাকবে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭৫৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০১৭
সিগারেট থাকলে বিড়িও থাকবে যশোরের নাভারণে বিড়ি শ্রমিকদের সমাবেশ। ছবি: বাংলানিউজ

নাভারণ (যশোর) থেকে: বাংলাদেশে ধূমপান তথা সিগারেট থাকলে বিড়ি শিল্পও থাকবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক এমকে বাঙ্গালী।

সোমবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে যশোরের নাভারণ এলাকার সাতক্ষীরা মোড়ে বিড়ি শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ যশোর শাখা আয়োজিত এক শ্রমিক সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

এমকে বাঙ্গালী বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার আগে থেকেই দেশে বিড়ি শিল্প ছিলো।

যখন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি আমাদের দেশ শাসন করেছে তখন তারাও বিড়ি শিল্প বন্ধের পাঁয়তারা করেছিলো। কিন্তু তাদের সেই আমাদের মতো জনতা তথা শ্রমিকরা সেই ষড়যন্ত্র সফল হতে দেয়নি। তাই বলতে চাই, যে শিল্পের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে প্রায় ৫০ লাখ শ্রমিক জড়িত সেই শিল্প কখনো বন্ধ করা যাবে না।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সমালোচনা করে তিনি আরো বলেন, বিএটিবি তথা ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো কোম্পানির সঙ্গে আঁতাত করে একটি মহল বিড়ি শিল্পকে ধ্বংসের পাঁয়তারা করছে। এ কারণে প্রতিবছরই বিড়ি শিল্পের ওপর ট্যাক্স তথা কর বাড়ানো হচ্ছে। কিন্তু দেশীয় এই শিল্পকে রক্ষায় আমরা পিছপা হবো না।

সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, আমাদের বাপ-দাদার আগের প্রজন্মও এই বিড়ি শিল্পে জড়িত। হঠাৎ করেই একটি মহল কেন বিড়ি শিল্প ধ্বংস করতে চায়, সেটার পেছনের রহস্য বের করতে হবে। এর পেছনে কোনো মহল জড়িত নাকি সরকারের কোনো কর্মকর্তা জড়িত সেটা বের করতে হবে।

বিড়ি শ্রমিকদের পক্ষে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা।  ছবি: বাংলানিউজঅন্যদিকে ২০০৪ সালে সরকার যখন বিড়ি বন্ধ করতে চেয়েছিলো, তখনও আমরা রাজপথে ছিলাম। এবারও আমরা বিড়ি বন্ধের ষড়যন্ত্র রোধে রাজপথে থাকব।  

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বিড়ি শ্রমিক নেত্রী মায়া বেগম বলেন, বিড়ি শিল্প বন্ধ করে আমাদেরকে ভিখারী বানাবেন না। আমরা ভিক্ষা চাই না, কাজ করে খেতে চাই। আমাদের কয়েক প্রজন্ম যেখানে বিড়ি শিল্পে যুক্ত আপনি সেই শিল্পকে বন্ধ করবেন না।

এদিকে সকালে শতশত বিড়ি শ্রমিক যশোর থেকে নাভারণ পর্যন্ত মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে রোড শো’তে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, রোববার (৫ নভেম্বর) বাগেরহাট থেকে বিড়ি শ্রমিকদের রোড শো শুরু হয়েছে। আগামী ৯ অক্টোবর সিরাজগঞ্জে শেষ হবে প্রথম পর্বের রোড শো।

সমাবেশে বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আমিন উদ্দিন বিএসসি’র সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, সদস্য হারিক হোসেন, শামীম রহমান প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০১৭
এসজে/জেডএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa