ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

তথ্যপ্রযুক্তি

আর বন্ধ হবে না ফেসবুক!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৫
আর বন্ধ হবে না ফেসবুক! ফাইল ফটো

ঢাকা: জরুরি পরিস্থিতি ছাড়া আর কখনও বাংলাদেশে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ করা হবে না বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।
 
মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের কার্যক্রমের অগ্রগতি ও বাস্তবায়নের পর্যালোচনা বিষয়ক এক সভা শেষে প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের একথা জানান।


 
প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় সভায় উপস্থিতি ছিলেন।
 
গত ১৮ নভেম্বর ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো বন্ধ করে দেয় সরকার। ওই দিন যুদ্ধাপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের রিভিউ খারিজ করে দেয় আপিল বিভাগ, ২১ নভেম্বর দিনগত রাতে তাদের ফাঁসি কার্যকর করা হয়।
 
বন্ধ থাকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উসকানি ছড়িয়ে এবার নাশকতা কম হয়েছে বলে দাবি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
 
বন্ধের ২৩ দিনের মাথায় গত ১০ ডিসেম্বর ফেসবুকের সঙ্গে এর অ্যাপস ম্যাসেঞ্জার খুলে দেওয়া হলেও অন্যান্য মাধ্যমগুলো বন্ধ ছিলো। তবে চালু ছিলো টুইটার।
 
কিন্তু কেউ কেউ বিকল্প পথে এসব মাধ্যম ব্যবহার করে আসছিলো।
 
১৩ ডিসেম্বর রাতে মোবাইল অপারেটর ও ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে টুইটার, স্কাইপ ও ইমো বন্ধের নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি)। রাতেই তারানা হালিম বাংলানিউজকে বলেছিলেন, এটি নতুন নির্দেশনা নয়, আগের নির্দেশনার পুনরাবৃত্তি।
 
এর একদিন পর ১৪ ডিসেম্বর বিটিআরসির নির্দেশনার পরপরই বিকেলে সামাজিক যোগাযোগের এসব মাধ্যম খুলে দেয় সংশ্লিষ্ট অপারেটররা।
 
নির্দেশনায় ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ, লাইন, ট্যাঙ্গো, হ্যাঙ্গআউট, স্কাইপ, ইমো ও টুইটার খুলে দিতে বলা হয়।
 
আর কখনও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ করা হবে কি না- জানতে চাইলে তারানা হালিম সাংবাদিকদের বলেন, আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ করতে চাই না, কখনই বন্ধ করতে চাই না। ‘আনলেস অর আনটিল’ এটা একেবারেই ইমার্জেন্সি। এছাড়া কখনও কোনোদিন কোনো সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ হবে না।
 
‘ইমার্জেন্সি যখন মনে করবে সেই সময় ছাড়া কখনও বন্ধ হবে না। ’
 
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধে সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান প্রতিমন্ত্রী।
 
বিটিআরসি জানায়, চলতি বছরের শুরুতে বিএনপির নেতৃত্বে ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধের সময় ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপসহ কয়েকটি অ্যাপ কিছু দিনের জন্য বন্ধ রাখা হয়।
 
এর আগেও ২০০৯ সালে বিডিআর বিদ্রোহের সময়ও ফেসবুক বন্ধ করেছিলো সরকার।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৫
এমআইএইচ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।