ঢাকা, বুধবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

আরব আমিরাত ও বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানিতে অনুমোদন দিল ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২১ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
আরব আমিরাত ও বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানিতে অনুমোদন দিল ভারত

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশে ৬৪ হাজার ৪০০ টন পেঁয়াজ রপ্তানিতে অনুমোদন দিল ভারত। দেশটির ন্যাশনাল কোঅপারেটিভ এক্সপোর্ট লিমিটেডের (এনসিইএল) মাধ্যমে এ পেঁয়াজ রপ্তানি হবে।

খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে দুটি দেশের জন্য পৃথক বরাদ্দ রয়েছে। মন্ত্রণালয়ের একটি শাখা, ডিরেক্টরেট জেনারেল অব ফরেন ট্রেড (ডিজিএফটি) বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, এনসিইএলের মাধ্যমে ১৪ হাজার ৪০০ টন পেঁয়াজ আরব আমিরাতে যাবে।

২০২৩ সালের ৭ ডিসেম্বর ভারত ৩১ মার্চ পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয়। ৮ ডিসেম্বর থেকে এটি কার্যকর হয়। অভ্যন্তরীণ বাজারে পেঁয়াজের চাহিদা মেটাতে এবং এর পাইকারি দাম স্থিতিশীল রাখতে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়। তবে কেন্দ্র বন্ধু দেশগুলোতে নির্দিষ্ট পরিমাণে রপ্তানিতে অনুমোদন দেয়। সরকারের অনুরোধ এবং অনুমতির ভিত্তিতে এ রপ্তানির অনুমোদন দেওয়া হয়।

ভোক্তাদের স্বস্তি দেওয়ার প্রয়াসে দেশটির সরকার খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ২৫ রুপি ভর্তুকি হারে মজুত থেকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেয়। দাম আরও নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকার এর আগে ২৮ অক্টোবর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানিতে টনপ্রতি ৮০০ ডলার ন্যূনতম রপ্তানি মূল্য (এমইপি) আরোপ করে। উপরন্তু, ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পেঁয়াজের ওপর ৪০ শতাংশ রপ্তানি শুল্ক ছিল।

চলতি অর্থবছরের ১ এপ্রিল থেকে ৪ আগস্ট পর্যন্ত মোট ৯ দশমিক ৭৫ টন পেঁয়াজ ভারত থেকে রপ্তানি হয়। দামের দিক থেকে শীর্ষ তিনটি আমদানিকারক দেশ হলো বাংলাদেশ, মালয়েশিয়া ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৮ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।