ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

ইনকা সভ্যতার আগের সময়ের মানুষের সন্ধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২০ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০১০

লিমা: ইনকা সভ্যতার আগের সময়ের একজন মানুষের সন্ধান পেয়েছেন পেরুর প্রতœতত্ত্ববিদরা। সন্ধান পাওয়া ওই দেহাবশেষটি এক হাজার দুইশ বছর প্রাচীন বলে মঙ্গলবার গবেষকদের একজন জানিয়েছেন।



গবেষক কার্লোস এলেরা বার্তাসংস্থা এএফপিকে জানান, পেরুর লামবাইয়েকিউ অঞ্চল থেকে পাওয়া এ ধ্বংসাবশেষ সিকান সংস্কৃতির বলে ধারণা করা হচ্ছে। ৭০০ থেকে ১৩৭৫ খ্রিস্টাব্দে ওই সংস্কৃতির উত্থান ঘটে।

দুই সপ্তাহ আগে লাস ভেনটানাস নামের একটি প্রতœতাত্ত্বিক ভবনের ভেতরে কিছু ধ্বংসাবশেষের সন্ধান পাওয়া যায়। এগুলোর মধ্যে একটি পাথরের শবাধার বা কফিন রয়েছে বলে জানান তিনি। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য তৈরি এ শবাধারের মাথায় মুকুট ও চোখে পালক ছিলো। এ ধরনের সাজসজ্জা সাধারণত সিকান সংস্কৃতির নেতাদের হয়ে থাকে বলে এলেরা জানান। একইসঙ্গে অনুষ্ঠানাদিতে ব্যবহার করা ছুরি, সিরামিক, তামায় মোড়া পোশাক পাওয়া গেছে বলেও তিনি জানান।

এপ্রিল থেকে লাস ভেনটানাসে গবেষণার কাজ শুরু করার পর এ পর্যন্ত ২০ জন মানুষের দেহাবশেষের সন্ধান পাওয়া গেছে বলেও এলেরা জানান। এদের মধ্যে পাওয়া তিন থেকে চার বছরের একটি শিশু রয়েছে। শিশুটি ১১০০ থেকে ১১৫০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সময়ের বলে ধারণা করা হচ্ছে।

৭০০ থেকে ৭৫০ খ্রিস্টাব্দে সিকান সংস্কৃতির উত্থান ঘটে এবং ১৩৭৫ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত তা টিকে থাকে। এর মধ্যে ৯০০ থেকে ১১০০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত ওই সংস্কৃতির চূড়ান্ত বিকশিত পর্যায়।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa